ভূমি অফিসের নাজির এখন বিতর্কিত টাকা নেননা

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর , ২০১৫ সময় ০৯:২৬ অপরাহ্ণ

এলোমেলো টাকার লেনদেন না করতে এসিল্যান্ড স্যারের মানা!বি,এম হাবিব উল্লাহ. চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি-চকরিয়া উপজেলা ভূমি অফিসের নাজির মেজহাহ উদ্দিন খতিয়ান সৃজন করতে আসা প্রার্থীদের কাছ থেকে এখন আর বিতর্কিত টাকা নিচ্ছেন না। একইভাবে কার্যালয়ের অন্যান্য অফিস সহকারীরাও এই ধরনের বিতর্কিত লেনদেন থেকে বিরত রয়েছে বলে তার স্ব-স্ব বক্তব্যের দাবি। তবে তারা দপ্তরের এহেন নীতিগত সিদ্ধান্তের আগে ভুক্তভোগি জনসাধারণের কাছ থেকে যতটুকু পেরেছেন সাধ্যতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নেয়ার দায় স্বীকার করেছেন। তারা বলেন, জনসাধারণের কাছ থেকে বেপরোয়া টাকা ধরার বিষয়টি এসিল্যান্ড স্যার পছন্দ করেন না। এসিল্যান্ড স্যারের নিষেধ রয়েছে; তাই এখন আর কারো কাছ থেকে অতিরিক্ত কোন টাকা হাতে ধরিনা।
সূত্রে জানা গেছে, চকরিয়া উপজেলা ভূমি অফিসে বেপরোয়া ঘুষ বাণিজ্য, দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠে পাহাড় সমান। ফলে নানান কিস্তিতে হয়রানির শিকার হতো সেবা নিতে আসা প্রার্থীরা। সম্প্রতি উপজেলার বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের হিসাব-নিকাশের ক্ষেত্রে পর্যবেক্ষণে আসা দুর্নীতি দমন কমিশন দুদকের কাছে নানান প্রশ্নে প্রশ্নবিদ্ধ হয় উপজেলা ভূমি অফিসও। কিন্তু সুনামের সহিত সেই বদনাম রোধ করতে বর্তমান উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আহাম্মদ হোসেন ভূঁইয়া এব্যাপারে হার্ডলাইনে যান। এতে উক্ত কার্যালয়ে জমির খতিয়ান সৃজন করতে আসা প্রার্থীদের সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে ফিরে পায় পরিচ্ছন্নতার সুষ্ঠু পরিবেশ। এদিকে ভূমি অফিসের এমন তথ্যের সরেজমিন করতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের নাজির মেজবাহ উদ্দিন সোহেল- কোন ধরনের এলোমেলো টাকা হাতে না ধরার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এসিল্যান্ড স্যারের কড়া নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তবে কেউ খুশি হয়ে দিলে; তা পকেটে নিতে আপত্তির কিছু দেখিনা।

*এলোমেলো টাকার লেনদেন না করতে এসিল্যান্ড স্যারের মানা!
*চকরিয়া ভূমি অফিসের নাজির এখন বিতর্কিত টাকা নেননা


আরোও সংবাদ