ভূমিকম্পের পূর্বাভাস দেওয়া সম্ভব

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর , ২০১৫ সময় ১০:২১ অপরাহ্ণ

ভূমিকম্পের পূর্বাভাস দেওয়া সম্ভব করে তুলেছেন ভারতের বিজ্ঞানীরা। তাদের একাংশ বলছেন কলকাতায় বসেই দেওয়া যাবে আশপাশের দেশের বড় ভূমিকম্পের পূর্বাভাস।

বায়ুমণ্ডলের একটি স্তরের চরিত্র-বিচার করে ‘বিধির বিধান’ আগেভাগেই জেনে ফেলা যাচ্ছে! তা কতটা ভয়াবহ হতে পারে, তার তাণ্ডব কতটা এলাকা জুড়ে চলতে পারে, তা-ও আগাম ঠাওর করা যাচ্ছে। বাসুকি কোথায়, কোন সময়ের মধ্যে মাথা নাড়া দেবে, তা অনেক ক্ষেত্রেই বলে দেওয়া যাচ্ছে।

বিজ্ঞানীদের দাবি, বায়ুমণ্ডলের একটা স্তর ‘আয়নোস্ফিয়ার’-এ তড়িৎ-কণা বা আধানের তারতম্য বিচার করে বড় ভূমিকম্প কোথায়, কত দিনের মধ্যে হতে যাচ্ছে, তার পূর্বাভাস দেওয়া যাচ্ছে। বড় ভূমিকম্পের ক্ষেত্রে যার সাফল্যের হার ৫০ থেকে ৬০ শতাংশ।

বড় ভূমিকম্পের পূর্বাভাস পেতে ভূ-বিজ্ঞান মন্ত্রকের অধীন কলকাতার ‘ইন্ডিয়ান সেন্টার ফর স্পেস ফিজিক্স’ (আইসিএসপি)-এর উদ্যোগে কলকাতা, মেদিনীপুর, মালদহ, কালিম্পং ও কোচবিহার সহ রাজ্যের পাঁচটি জায়গায় বসানো হয়েছে অত্যন্ত কম কম্পাঙ্কের রেডিও তরঙ্গ মাপার ‘ভেরি লো ফ্রিকোয়েন্সি (ভিএলএফ) রেডিও সিগন্যাল রিসিভার’। কয়েক বছরের মধ্যে দেশে এমন আরও ২৫/৩০টি ‘ভিএলএফ রিসিভার’ বসতে চলেছে।

বায়ুমণ্ডলের আয়নোস্ফিয়ার নিয়ে গবেষণারত পদার্থবিজ্ঞানী সুজয় পালের দাবি, ‘‘রাজ্যে বসানো পাঁচটি ভিএলএফ রিসিভারের মাধ্যমে ২০০৪ সালে সুমাত্রা, ২০১১ সালে পাকিস্তান আর এ বছর নেপালের মতো বড় ভূমিকম্পের পূর্বাভাস পাওয়া গিয়েছিল। গত কয়েক বছরে ভারতে বা প্রতিবেশী দেশে বড় ভূমিকম্পের অন্তত ৫০ থেকে ৬০ শতাংশের পূর্বাভাস সঠিক ভাবে দেওয়া গিয়েছে।’’