ভিসা না পাওয়ায় হজ ক্যাম্পে বিক্ষোভ

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ সময় ১১:০২ অপরাহ্ণ

মুয়াল্লেম (হজ এজেন্সি প্রতিনিধি) ভিসা না পাওয়ায় রাজধানীর হজ ক্যাম্পে বিক্ষোভ করেছে এজেন্সি মালিকরা। তাদের তোপের মুখে অফিস ত্যাগ করেন ক্যাম্পের পরিচালক মিজানুর রহমান। এ সময় সেখানে ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটেছে বলে জানা গেছে। এসময় দুই শতাধিক এজেন্সি মালিক হজ ক্যাম্পে অবস্থান করছিলেন।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার এজেন্সিগুলোর জন্য মুনাজ্জেম ভিসা হাতে তুলে দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভিসা হচ্ছে না এ সংবাদ পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন এজেন্সি মালিকরা। তারা হজ ক্যাম্পে গিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

এক পর্যায়ে ক্যাম্প পরিচালকের ওপরও তারা চড়াও হন। এসময় আসবাবপত্র ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পরে হজ অফিসের কর্মকর্তারা অফিস ত্যাগ করলেও বিক্ষোভ অব্যাহত থাকে।

বিক্ষোভ চলাকালীন সন্ধ্যা ৭টার দিকে শতাব্দী এভিয়েশনের প্রতিনিধি মুহাম্মদ রফিক বাংলামেইলকে বলেন, ‘আমরা প্রায় দুই আড়াইশ এজেন্সির মালিক হজ অফিসে আছি। আমাদের ভিসা হচ্ছে না। আমাদের হাজিরা সৌদিতে চলে গেছে, সেখানে তাদের দেখাশুনা করার জন্য আমাদের দ্রুত যাওয়া প্রয়োজন। কিন্তু আজকেও (বৃহস্পতিবার) ভিসা হয়নি। এখানে হজ অফিসের কোনো কর্মকর্তারাও নেই। বিকেলে হজ অফিসের কর্মকর্তারা চলে গেছেন।’

এ বিষয়ে জানার জন্য হজ ক্যাম্পের পরিচালক মিজানুর রহমানের মোবাইলে ফোন করলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। পরে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (হজ) জাহাঙ্গীর আলমকে ফোন করলে তার মোবাইলও বন্ধ পাওয়া যায়।

তবে হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কবির জামান বলেন, ‘আজকে (বৃহস্পতিবার) ভিসা হয়নি। তাদের ভিসা রোববার হবে। এখন বিক্ষোভ করে কোনো লাভ হবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইতোমধ্যে ৫১০টি এজেন্সির প্রতিনিধিদের ভিসা হয়েছে। বাকি ৩২৫টির ভিসা প্রক্রিয়াধীন। সৌদি দূতাবাসের সাথে আলোচনা হয়েছে। তারা পাসপোর্ট নিয়েছেন। রোববার ভিসা দিয়ে দিবেন। কোনো সমস্যা হবে না।’

এজেন্সি মালিকদের অভিযোগ, তাদের অধিকাংশ হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছে গেলেও মুনাজ্জেম ভিসা না পাওয়ার কারণে মালিকরা যেতে পারছেন না। ফলে হজ যাত্রীদের দেখাশুনা ও আনুষঙ্গিক কার্যক্রমে অসুবিধা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছর গত ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে হজ এজেন্সি মালিকদের মাল্টিপল ভিসা বন্ধ করে দেয় সৌদি কর্তৃপক্ষ। ফলে হজ ব্যবস্থাপনায় এজেন্সি মালিকদের একাধিকবার দেশে আসা যাওয়া এবং সৌদি আরবে চলাচলের ক্ষেত্রে সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে বলে এজেন্সি মালিকদের অভিযোগ। ধর্ম মন্ত্রণালয় ৮০ জন পর্যন্ত যাদের হজযাত্রী আছে তাদেরকে একটি করে স্টিকার ভিসা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় এবং ৮০ জনের নিচে যাদের হজযাত্রী তাদেরকে একটি স্বাভাবিক হজ ভিসা দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করে। সেই ভিসা পেতেও বিলম্ব হওয়ায় এজেন্সি মালিকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন।