‘ভাষা আন্দোলন-ছয় দফা, সাতই মার্চ ও মুক্তিযুদ্ধ সবই একসূত্রে গাথা’

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন , ২০১৬ সময় ০৯:১২ অপরাহ্ণ

৭ই মার্চ
জামায়াত-বিএনপি থেকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বেগম জিয়া দিশকূল পাচ্ছে না। তাই জামায়াত-বিএনপি আমাদের মধ্যে (আওয়ামী লীগ) ঢুকে পড়ছে। মারামারি করছে। দেখে-শুনে পরীক্ষিত নেতা-কর্মীদের নিয়ে সংগঠন করবেন।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) আওয়ামী লীগের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগকে বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন দল আখ্যা দিয়ে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ বলেন, আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠার পর থেকেই বাঙালির যা কিছু অর্জন। ভাষা আন্দোলন, ছয় দফা, সাতই মার্চ, গণ আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ সবই একসূত্রে গাথা। শেখ হাসিনা ৩৫ বছর সভানেত্রী হিসেবে আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এটি সহজ ব্যাপার নয়। এককভাবে বলিষ্ঠ নেতৃত্বে তিনি দলকে, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, ১৯৮১ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এদেশে প্রত্যাবর্তন করার পর আকাশে বাতাসে শুধু ধ্বনিত হয়েছিল শেখ হাসিনা, শেখ হাসিনা নামটি। দলের অনেকে এটি ভালো চোখে দেখেনি। অনেকে দল থেকে চলে গেছেন। নয় বছর দলের বাইরে ছিলেন। ১৯৯১ সালের নির্বাচনে তারা আলাদাভাবে নির্বাচন করেছেন। দল ভাঙার তালে ছিলেন।

ই্ঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর স্নেহ পেয়েছি। তাকে কাছে থেকে চেনার, জানার সুযোগ পেয়েছি। আমি দেখেছি বঙ্গবন্ধু কন্যার হৃদয়ও বিশাল। যারা দল ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন তিনি তাদের ফিরিয়ে এনেছেন। ঘরের ছেলেকে ঘরে নিয়ে এসেছেন। মন্ত্রী পরিষদের সদস্য করেছেন।

চট্টগ্রামের উন্নয়ন বর্তমান সরকার কাজ করছে জানিয়ে তিনি বলেন, কর্ণফুলীর তলদেশে টানের ব্যবস্থা হবে। দক্ষিণের সঙ্গে এ শহরকে যুক্ত করা হবে। গ্যাস সংকট নিরসনে এলএনজি টার্মিনাল হচ্ছে মাতারবাড়িতে।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে সভায় সংসদ সদস্য শামসুল হক চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য দেন।