ভারতে আটক কুতুবদিয়ার ২৭ জেলেকে ফিরিয়ে আনার দাবী

প্রকাশ:| রবিবার, ১৫ নভেম্বর , ২০১৫ সময় ০৮:৩৩ অপরাহ্ণ

পরিবারের সদস্য
লিটন কুতুবী, কুতুবদিয়া। ভারতের কারাগারে আটক কুতুবদিয়ার ২৭ জেলেকে ফিরিয়ে আনার জন্য সরকারের প্রতি দাবী জানিয়েছে জেলেদের পরিবার। রবিবার (১৫নভেম্বর) বিকালে কুতুবদিয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের হল রুমে উপস্থিত হয়ে আটক জেলে পরিবারের সদস্যরা তাদের উপার্জনে সক্ষম লোক ভারতের কারাগারে আটক থাকায় তারা পরিবার পরিজন নিয়ে অনাহারে দিনোতিপাত করছে এমন দাবী করে কান্নায় ভেঙে পড়েছে অনেকে। উপস্থিত জেলে পরিবারের সদস্যরা দাবী করেছে, চলতি শুস্ক মৌসুমে মাছ ধরার জন্য গত এক সপ্তাহ পূর্বে কক্সবাজারের কুতুবদিয়ার উপকূলের কৈয়ারবিল ইউনিয়নের নজর আলী মাতবর পাড়া জিয়াউর রহমান বাবুলের মালিকানাধীন এফ.বি জেড রহমান (যার রেজি নং এস ৮১৯২) ফিশিং ট্রলারটি ২৭ জেলে নিয়ে গভীর সাগরে মাছ ধরার উদ্দেশ্যে যায়।

ফিশিং ট্রলারটি বঙ্গোপসাগরে মাছধরারত অবস্থায় ঘন কুয়াশার কারণে ট্রলারের মাঝি মোঃ ছাবের জলসীমার দিক হারিয়ে ভুল করে বাংলাদেশ জলসীমা ছেড়ে ভারতের জলসীমায় প্রবেশ করে। এ সময় ভারতের জলসীমায় টহলরত কোষ্টগার্ড ২৭ জেলেসহ ট্রলারটি আটক করে। অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের অভিযোগে ভারতীয় কোষ্টগার্ড ২৭ জেলেসহ ট্রলারটি সে দেশের প্যাজারগঞ্জ কোস্টাল থানায় সোর্পদ করে। এদিকে ভারতের কারাগারে কুতুবদিয়ার জেলে আটক হওয়ার খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে জেলে পরিবারগুলোতে বয়ে যায় কান্নার রুল। বড়ঘোপ রোমাই পাড়া এলাকার ছাবের আহমদের পিতা ছৈয়দ আহমদ জানান, আমার ছেলে কয়েক সপ্তাহ আগে ট্রলারের মালিকের নিকট চুক্তিবদ্ধ হয়ে সাগরে মাছ ধরতে গিয়ে ভারতের কোস্টগার্ডে হাতে আটক হয়েছে। ভারতে আটক জেলেরা হচ্ছে, বড়ঘোপ ইউনিয়নের রোমাই পাড়ার সাবের আহমদ, আজম কলোনীর মোঃ আলম, জাহাঙ্গীর, গিয়াস উদ্দিন ও ছরওয়ার, মনোহরখালী গ্রামের বাবুল ও একই ইউনিয়নের গোলদার পাড়ার বাদশা। অন্যান্যদের মধ্যে কৈয়ারবিল ইউনিয়নের রোসাই পাড়া এলাকার নজরুল ইসলাম , আবদুল মুরাদ, মোঃ সুমন ও মোঃ সাদ্দাম, আলী আকবর ইউনিয়নের কিরণপাড়ার জাগির হোসেন, নুরুল কবির, মাত নূর, জমির উদ্দিন, হকদার পাড়ার বাবুল ও আমান উল্লাহ, লেমশীখালী ইউনিয়নের শাহাজির পাড়ার মোঃ কালু ও আরাফাতসহ মোট বিশ জনের পরিচয় জানা গেলেও বাকিদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

গত ১০ নভেম্বর ভারতের ০০৯১৭৭৯৭৩৮২৩৯৩ নং ফোন নাম্বারের মাধ্যমে ট্রলার মালিক বাবুলের সাথে আটককৃত থানা পুলিশ যোগাযোগ করলে বিষয়টি নিশ্চিত হয় পরিবারগুলো। আটককৃত জেলেরা বর্তমানে ভারতীয় কারাগারে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করলে ট্রলার মালিক জিয়াউর রহমান (বাবুল) গত ১০ নভেম্বর কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছে (যার নং-২৭১)। কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অংসা থোয়াই কুতুবদিয়ার ২৭ জেলে ভারতে আটকের বিষয় নিশ্চিত করেছেন।