ভাঁজ করা যায় গাড়ি

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১২ মে , ২০১৫ সময় ০৮:৩৫ অপরাহ্ণ

সড়কে নিত্যদিন বাড়ছে যানের সংখ্যা। ফলে যানজটের পাশাপাশি পার্কিং সংকটও বাড়ছে। অন্যদিকে যানবাহন থেকে নির্গত কার্বন পরিবেশ দুষণের জন্য অনেকটাই দায়ী। এসব দিক চিন্তা করে অটোমোবাইল প্রকৌশলীরা বিদ্যুৎ চালিত ভাঁজ করা যায় এমন একটি গাড়ি তৈরি করেছেন।

জার্মান অটোমোবাইল প্রকৌশলীদের এই গাড়িটি সংকীর্ণ সড়কে কাঁত হয়ে চলতে পারে। যেখানে পাকিং সংকট সেখানে ভাঁজ করে গাড়িটি পাকিং করে রাখা যায়। ফলে পার্কিংয়ের জন্য খুব একটি বেশি জায়গা লাগে না।

গাড়িটির নির্মাতারা এটির নাম দিয়েছে ‘ইও স্মার্ট কানেকটিং কার ২’। এটি তৈরি করা হয়েছে জার্মানির বারমেনের ডিএফকেআই রোবোটিক ইনোভেশন সেন্টারে। গত তিন বছরে ধরে একদল সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, ডেভেলপার, ডিজাইনার, ইলেকট্রনিক্স এবং কনস্ট্রাকশন প্রকৌশলীরা গাড়িটি তৈরির জন্য একযোগে কাজ করে আসছিল।
ভাঁজ করা যায় গাড়ি
গাড়িটি প্রেটোটাইপ প্রথম তৈরি করা হয় ২০১২ সালে। এরপর খানিকটা সময় নিয়ে দ্বিতীয় গাড়িটি তৈরি হলো।

গাড়িটি দেখতে অন্যসব জ্বালানি চালিত গাড়ির মতই। কিন্তু অন্যসব গাড়ি থেকে এটির পার্থক্য হলো কানেকটিং কারের প্রতিটি চাকার সঙ্গে একটি করে মোটর রয়েছে। মোটর থেকে গাড়িটি চলার জন্য শক্তি পায়।

গাড়িটির প্রজেক্ট ম্যানেজার টিমো বার্নসেইন বলেন, ‘ছোট আকারের নমনীয় এই গাড়িটি মহাসড়কের পাশাপাশি চিপাগলিতেও চলতে পারবে। এটি পার্কিংয়ের জন্য অল্প জায়গার প্রয়োজন হয়। সাধারণ গাড়ির মত সোজা অবস্থান থেকে মাত্র চার সেকেন্ড সময় নিয়ে এটি কাত হয়ে চলতে শুরু করতে পারে।

বিদ্যুৎ চালিত এই গাড়িটি ঘণ্টায় ৬৫ কিলোমিটার গতিতে ছুটতে পারে। ব্যাটারিতে একবার চার্জ দিলে এটি ৫০ থেকে ৭০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে পারে। দুই সিটের গাড়িটি ৮০ সে.মি. পর্যন্ত ছোট হতে পারে। যা কিনা একটি বাইকের সমান।

গাড়িটির নির্মাতারা জানান, এটির পরবর্তী ভার্সনে নিত্যনতুন প্রযুক্তির সংমিশ্রণ থাকবে। এতে কম্পিউটার কিংবা স্মার্টফোনের মাধ্যমে পরিচালনা করার প্রযুক্তি সংযুক্ত করার চিন্তা ভাবনা চলছে।