ব্যালট পেপার ছিনতাই চেষ্টা, জালভোট প্রদান ব্যতিত কাপ্তাইয়ে শান্তিপুর্নভাবে নির্বাচন

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০১৪ সময় ০৮:১৬ অপরাহ্ণ

২৭-২-১৪
কাপ্তাই প্রতিনিধি…. ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের চেষ্টা. জাল ভোট প্রদান সহ বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ব্যতিত শান্তিপুর্নভাবে গতকাল বৃহস্পতিবার কাপ্তাইয়ে দ্বিতীয় দফা উপজেলা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। উপজেলার মোট ১৮ টি কেন্দ্রের মধ্যে ১১ টি অধিক ঝুঁিকপুর্ন ও ৭ টি কেন্দ্র ঝুকিঁপুর্ন ছিল। এ নিয়ে ভোটের আগে থেকেই জনমনে উদ্বেগ, উৎকন্ঠা থাকায় নির্বাচনে ভোটারের উপস্থিতির হার তুলনামূলক ভাবে কম ছিল। তবে কিছু কেন্দ্রে মহিলা ভোটারের উপস্থিতি বেশী ছিল। ঝুঁকিপুর্ণ এসব কেন্দ্রে র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। এছাড়া ৪ জন ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ১১ টি ভ্রাম্যমান টীম কাজ করেছে। উপজেলার কোথাও তেমন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। তবে ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নের তৈয়বিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা বেলা ২ টার সময় জোর পুর্বক ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। বাধা দিতে গেলে কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার হারুনুর রশিদকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়। এর পর পুলিশ ছিনিয়ে নেওয়া ব্যালট পেপার উদ্ধার করে এবং কেন্দ্রে ২ টা থেকে এক ঘন্টা ভোট গ্রহন বন্ধ রাখে। এছাড়া, কেআরসি কেন্দ্রে শহিদুল ইসলাম নামের এক জাল ভোটারকে হাতেনাতে ধরে তাৎক্ষনিক ভ্রাম্যমান আদালত ৬ হাজার টাকা জনিমানা অনাদায়ে ২ মাসের জেল প্রদান করে। এছাড়া চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন পরিষদ কেন্দ্রে ঝালভোট দিতে গিয়ে আণ আমিন ও খোকন নামের দু’যুবককে বিজিবি আটক করে পুলিশে সোপর্র্দ করে। নির্বাচনে ৩ জন চেয়ারম্যান, ৬ জন ভাইন চেয়ারম্যান এবং ২ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্ধিতা করে।