বোধনের ৩২ বছরে পর্দাপন

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৯ জানুয়ারি , ২০১৮ সময় ১১:৫৮ অপরাহ্ণ

আশির দশকের শেষের দিকে স্বৈরশাসনের জলপাই আতঙ্কের মধ্য দিয়ে জন্ম নিয়েছিলো বোধন আবৃত্তি পরিষদ চট্টগ্রাম। একদল স্বপ্নবান তরুন এই জনপদে মাতৃভাষার সঠিক রুপটি গন মানুষের কাছে পৌছে দেওয়ার সেই যাত্রা এখনও চলছে বিরতিহীনভাবে। একদিনও থেমে না থেকে এই অভিযাত্রা অনেকটা স্পর্ধারও বটে।

মঙ্গলবার (০৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় বোধনের ৩২ বছরে পর্দাপন উপলক্ষে বক্তাদের কথায় বার বারই উঠে এসেছে এই দীর্ঘ সময়ের গল্প। এই লম্বা সময়ে বোধন শুধু আবৃত্তি কেন্দ্রিক চিন্তাই করেনি বরং সমাজ ও দেশের নানান সংকটে সমানের সারিতে থেকেছে ন্যায়ের পক্ষে। সেই দিক থেকে বোধন এই তল্লাটের পুরোধা সংগঠনও বটে।

দীর্ঘ এই যাত্রাকে আকাশস্পর্শী যাত্রা উল্লেখ করে বোধনের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন আবৃত্তি শিল্পী পারভেজ চৌধুরী জানান, ‘মূলত দুইটি বিষয়কে সামনে রেখেই যাত্রা শুরু করেছিলো বোধন। প্রথমত চট্টগ্রামের সাধারণ মানুষের কথা বলায় উচ্চারণগত সমস্যাকে দূর করে বাচিক উৎকর্ষতা বাড়ানো। আর দ্বিতীয়ত এই তল্লাটের যে কোন প্রগতিশীল সামাজিক-সাংস্কৃতিক আন্দোলনে যুক্ত থাকা। এই দুইটি কাজই বোধন এতোদিন ধরে খুব মনোযোগের সাথে করে আসছে, সামনেও করতে থাকবে।’

গল্প-কথায় চলে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান। বোধনকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানায় উদীচী, নরেন আবৃত্তি একাডেমি, স্বরনন্দন, উচ্চারকসহ বিভিন্ন সংগঠন।

বোধনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নাট্যকর্মী সাইফুল ইসলাম বাবু বলেন ‘বোধন হল বৃক্ষের মত, যার ছায়ায় চট্টগ্রামের অনেকগুলো মানুষ নিজের বোধকে জাগ্রত করে।’

কবি জিন্নাহ চৌধুরী বলেন ‘বোধন শিশুদের নিয়ে অনেক বড় একটা অভিযাত্রায় চলছে। এই যা্ত্রা যেনো কিছুতেই থেমে না থাকে।

নাট্যকর্মী অলক ঘোষ পিন্টু ‘স্বাধীনতার পর নাটকের দলগুলো ছিল খুব ভালো অবস্থায়, এখন আবৃত্তির দলগুলো খুব ভালো কাজ করছেন, চট্টগ্রামের মানুষদের উচ্চারণ নিয়ে সমস্যা আছে বোধন এক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে।’

অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন শ্রাবণী গুহ এ্যানী। সঞ্চালনা করেন আবৃত্তিশিল্পী প্রণব চৌধুরী।