বেড়িবাঁধ সংস্কারে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৪ জুলাই , ২০১৬ সময় ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ

বাঁধ সংস্কারবেড়িবাঁধ সংস্কার কাজে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে বরগুনার তালতলীতে। বাঁধের অনেক জায়গায় উঁচু স্থান কেটে নিচু করা হচ্ছে, সে মাটি কাটা হচ্ছে বাঁধের খুব কাছ থেকেই। এতে কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে বাঁধ সংস্কার কাজ তেমন কোন কাজে আসবে না বলে মনে করেন এলাকাবাসী। অবশ্য পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে, আবারো মাটি ফেলা হবে বাঁধে।

বছর বছর বন্যা ও নদীর উত্তাল ঢেউ মারাত্মকভাবে বরগুনার পায়রা নদী পারের বাঁধটিকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। এতে নদীতে স্বাভাবিক জোয়ার থেকে একটু বেশি পানি হলেই বাঁধ উপচে নদী পারের গ্রামগুলো প্লাবিত হয়। এ অবস্থায় উঁচু ও ক্ষতিগ্রস্ত স্থানগুলো মেরামতের কাজ করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। কিন্তু বাঁধ উঁচু করার পরিবর্তে পুরাতন বাঁধ থেকে উল্টো এক থেকে দেড় ফুট মাটি কেটে নেয়া হয়েছে।

অপরদিকে, ক্ষতিগ্রস্ত স্থানগুলোতে যে মাটি ফেলা হচ্ছে তা কাটা হচ্ছে বাঁধের পাশ থেকেই। এতে বাঁধের পাশে তৈরি হচ্ছে বড় বড় গর্ত।

বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ড নির্বাহী প্রকৌশলী এস এম শহিদুল ইসলাম বলছেন, কেটে ফেলা বেড়িবাঁধের উপর আবারো মাটি ফেলা হবে এবং বাঁধের পাশে করা গর্তগুলো ভরাট করা হবে।

২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে শুরু হওয়া কাজটি চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে শেষ হওয়ার কথা। পটুয়াখালী ও বরগুনায় এমন ৭টি বেড়িবাঁধ সংস্কারের জন্য ২৩৯ কোটি টাকা অর্থ সহায়তা করেছে বিশ্বব্যাংক।