বৃদ্ধ মুক্তিযোদ্ধাকে ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে পেঠালেন ইউপি চেয়ারম্যান

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৩০ ডিসেম্বর , ২০১৬ সময় ০৬:২৭ অপরাহ্ণ

বি,এম হাবিব উল্লাহ,চকরিয়া, প্রতিনিধি-
চকরিয়া উপজেলার চিরিংগা ইউনিয়ন পরিষদে ৭৫বছর বয়সী বৃদ্ধা মুক্তিযোদ্ধা, অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক ও কৃষি কর্মকর্তা আলহাজ¦ মাস্টার জহির আহমদকে ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে এনে প্রকাশ্যে পেঠালেন ইউপি চেয়ারম্যান।  গত ২৯ডিসেম্বর দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার চিরিংগা ইউনিয়ন পরিষদে ঘটেছে এঘটনা।  পরে আহত বৃদ্ধের পরিবারের সদস্যরা ও স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। বৃদ্ধের স্বাস্থ্যের অবস্থা অবনতি হওয়ায় অদ্য ৩০ডিসেম্বর সকাল ১১টায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেছে কর্তব্যরত চিকিৎসক। আহত বৃদ্ধা মাস্টার জহির উপজেলার চিরিংগা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সওদাগরঘোনা গ্রামের মরহুম বুজুরুস মেহের এর পুত্র।
অভিযোগে জানাযায়, মুক্তিযোদ্ধার মাস্টার জহির আহমদের পুত্র মোর্শেদ সওরয়ার এর স্ত্রী তসলিম বেগম পারিবারিক বিরোধে কক্সবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন আদালতে মামলা করে স্বামী ও শ^শুড় পরিবারের লোকজনের বিরুদ্ধে। ওই মামলা চকরিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট এর কাছে তদন্তাধিন রয়েছে। পুত্র বধু তসলিমার মামলা নিষ্পত্তি না হওয়ার পূর্বে কোন ধরণের ইস্যু বিহীন বিগত ইউপি নির্বাচনে পক্ষে কাজ করার খেসারত হিসেবে অন্যায়ভাবে চিরিংগা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন চৌকিদার দিয়ে তার পরিষদে ৭৫বছর বয়সী বয়োবদ্ধাকে ডেকে এনে শাররিক নাজেহাল ও বেধম প্রহার করে গুরুতর জখম করেন। বর্তমানে চকেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বৃদ্ধের অবস্থা আশংকা জনক রয়েছে। তার কুমরে, বুকে, পায়ে ও গলায় আঘাত রয়েছে বলে পরিবার দাবী করেছেন। ঘটনার বিষয়ে চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন জানিয়েছেন, স্ত্রী নির্যাতনের দায়ে শ^াশুড় বাড়ির পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে। তিনি সমাধান করে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু পরিষদের ভেতরে গ্রাম আদালত চলাবস্থায় ওই বৃদ্ধা গালমন্ধ আচরণ করায় পরিষদ থেকে বের করে দিয়েছেন