বির্তকিত শিক্ষককে চেয়ারম্যান নিয়োগ করায় জবিতে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা বর্জন

প্রকাশ:| শনিবার, ৫ এপ্রিল , ২০১৪ সময় ০৯:৫৮ অপরাহ্ণ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে বির্তকিত শিক্ষক অধ্যাপক ড. আব্দুল অদুদকে চেয়ারম্যান নিয়োগ দেয়ায় বিভাগে তালা লাগিয়ে এবং ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে প্রতিবাদ করেছেন শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে দাবি আদায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে স্মারকলিপি দিয়েছেন তারা। বির্তকিত এই শিক্ষককে গত বৃহস্পতিবার ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান নিয়োগ দেয় বিশ্ববিদালয় প্রশাসন। এতে ক্ষুব্ধ হন বিভাগের শিক্ষার্থীরা এবং অধিকাংশ শিক্ষক। তাই তার অপসারনের দাবিতে বিভাগের শিক্ষার্থীরা শনিবার সকাল ৯টায় ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে আব্দুল অদুদের রুমে তালা লাগিয়ে দেন। পরে প্রক্টর ড. অশোক কুমার সাহা এসে তালা ভেঙে দরজা খোলে দেন। এরপর বিক্ষুব্ধ শিক্ষাথীরা সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ভিসি অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমানের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ষড়যন্ত্রমূলকভাবে বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. রইছ উদ্দিনকে সরিয়ে গত বৃহস্পতিবার আব্দুল অদুদকে চেয়ারম্যান নিয়োগ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। অথচ তার বিরুদ্ধে শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্য, ভর্তিবাণিজ্য ও সাংবাদিককে হুমকি দেয়াসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া তিনি একাডেমিক কাজের চেয়ে শিক্ষক রাজনীতি নিয়ে বেশি ব্যাস্ত থাকেন বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। তাই তার অপসারণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষনা দেন তারা। এদিকে বিভাগের অধিকাংশ শিক্ষক বির্তকিত এই শিক্ষকের সঙ্গে কাজ করতে রাজি নন। একাধিক শিক্ষক অভিযোগ করে বলেন, এর আগেও তিনি চেয়ারম্যান ছিলেন। সে সময় তিনি ঠিক মত দায়িত্ব পালন করতে পারেননি। এ বিষয়ে আব্দুল অদুদের কাছে জানতে চেয়ে ফোন করা হলে তিনি পরে কথা বলবেন বলে ফোন রেখে দেন।