বিরামপুরে বিজিবি-চোরকারবারী সংঘর্ষে নিহত ২

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৩০ জুন , ২০১৫ সময় ০৮:৫৭ অপরাহ্ণ

দিনাজপুর বিরামপুরে বিজিবি ও চোরাকারবারীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় মো. শাহিন আলম (২৫) এবং মো. সুলতান আলী (২৩) নামে দুই চোরাকারবারী নিহত হয়েছেন।

নিহত মো. শাহিন আলম উপজেলার পূর্ব জগন্নাথপুর গ্রামের মো. শুকুর দফাদারের ছেলে ও চা হোটেল ব্যবসায়ী মো. সুলতান আলী একই এলাকার মো. আব্দুর রশিদের ছেলে। আজ মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় বিরামপুর রেল স্টেশনের পূর্ব পাশে এ ঘটনা ঘটে।

বিরামপুর থানার ওসি মো. আমিরুজ্জামান জানান, ঈশ্বরদী থেকে রূপসা ট্রেনে করে চোরাকারবারী অবৈধভাবে ভারতীয় কাপড় নিয়ে আসছিল। এ খবর পাওয়ার পর বিজিবি রূপসা ট্রেনটিতে অভিযান চালিয়ে অবৈধ মালামালগুলো আটক করে। পরে চোরাকারবারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে বিজিবির ওপর হামলা চালায়। সে সময় বিজিবির এক সদস্যকে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালায় তারা। বিজিবি আত্মরক্ষার্থে কয়েক রাউন্ড গুলি চালায়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে দুই চোরাকারবারী নিহত হয়।

২৯ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্ণেল কোরবান আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, চোরাকারবারীরা বিজিবির ওপর হামলা চালালে এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে স্থানীয় প্রশাসন কাজ করছে।

এ দিকে ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুদ্ধ জনতা সড়ক ও রেলপথ অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন অব্যাহত রেখেছে। পরিস্থিতি থমথমে অবস্থায় রয়েছে। যে কোনো মুহূর্তে বড় ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনার আশংকা করছেন স্থানীয়রা।

এদিকে বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএসএম মনিরুজ্জামান আল মাসুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। মারমুখী উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করার জন্য তিনি বার বার হ্যান্ড মাইকে ঘোষণা দিয়ে বলেন, ‘দোষী বিজিবি সদস্যকে অবশ্যই বিচারের মুখোমুখি দাঁড় করানো হবে।’ তার এ ঘোষণার পর আস্তে আস্তে লোকজন সরে যায়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।