বিপিএল ধুম-ধাড়াক্কা উদ্বোধনী ব্যয় তিন কোটি টাকা

প্রকাশ:| শনিবার, ১৭ অক্টোবর , ২০১৫ সময় ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ব্যাট-বলের ধুম-ধাড়াক্কা ধুন্দুমার লড়াইয়ের সঙ্গে দর্শকদের আকর্ষণের কেন্দ্রে থাকে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানটিকে জাঁকঝমকপূর্ণভাবে আয়োজন করতে পারলেই যেন টুর্নামেন্ট অর্ধেক সফল। সে কারণে এবারের আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে যতটা সম্ভব আকর্ষণীয় করে তোলার চেষ্টা করছে আয়োজক বিসিবি।

বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের পক্ষ থেকে আগেই জানানো হয়েছে, এবারের আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাতাতে ভারত থেকে আনা হচ্ছে বলিউড হার্টথ্রব হৃত্বিক রোশন এবং বলিউডের লঙ্কান গ্ল্যামার গার্ল জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজকে। দর্শকদের সুরের মুর্চনায় মোহিত করে তুলতে আনা হচ্ছে সঙ্গীতশিল্পী কৃষ্ণকুমার কুন্নাথকে (কেকে)।

তো এতবড় অনুষ্ঠান, এর ব্যায়ের বহরও নিশ্চয় অনেক বিশাল! বিসিবির একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, এবারের বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্যায় হবে প্রায় তিন কোটি টাকা। বিডিক্রিকটিম ডটকম নামে ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট একটি ওয়েবসাইটে তুলে ধরা হয়েছে এ তথ্য। বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে অনেক নির্ভরযোগ্য সংবাদ পরিবেশন করে উক্ত ওয়েবসাইটটি।

বিপিএল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের ব্যায় নিয়ে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে সমালোচনা। সমালোচকদের একটাই যুক্তি, যেখানে বাংলাদেশের সাকিব-মাশরাফিমসহ ছয় আইকনকে ৩৫ লাখ টাকার বেশি দেয়া হচ্ছে না, সেখানে একটি অনুষ্ঠান করতেই ব্যায় করা হচ্ছে ৩ কোটি টাকা! প্রশ্ন ওঠাই তো স্বাভাবিক। সমালোচকদের দাবি, বিসিবিই বাংলাদেশের বিশ্বসেরা ক্রিকেটারদের মূল্য কমিয়ে দিয়েছে।

বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে ২০ নভেম্বর মিরপুর শেরে-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। হোম অব ক্রিকেটে বিকেল চারটা থেকে শুরু হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। চলবে রাত দশটা পর্যন্ত। সে অনুষ্ঠানে যে বিদেশিদেরই প্রাধান্য থাকছে, সেটা তো আগেই জানিয়ে দেয়া হয়েছিল।

দর্শকরা সরাসরি বিপিএল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপভোগ করতে পারবেন। এজন্য তাদের গুনতে হবে সর্বনিম্ন ৩০০ থেকে সর্বোচ্চ ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত। তবে বিপিএল কর্তৃপক্ষ থেকে জানা গেছে, পরিস্থিতি বিবেচনায় টিকেটের মূল্য আরো বাড়তে পারে।


আরোও সংবাদ