বিদ্যুৎ এর বদলে চট্টগ্রাম-আশুগঞ্জ বন্দর ব্যবহার করতে চায় ভারত

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২ ডিসেম্বর , ২০১৪ সময় ০৯:৫৬ অপরাহ্ণ

বাংলাদশ বিদ্যুৎ দেয়ার মাধ্যমে চট্টগ্রাম ও আশুগঞ্জ বন্দর ব্যবহার করতে চায় ভারত। ভারতের ত্রিপুরার পালাটানায় বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে ফেরা বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু আজ একথা জানিয়েছেন। ওই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক ই ইলাহী চৌধুরীও অংশ নেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভারতের কাছে আমাদের ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের অনুরোধ ছিল। আমরা ভবিষ্যতের জন্য আরও চেয়েছি। আমরা যা চাইবো ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাই দেয়ার কথা বলেছেন। বিনিময়ে ভারত ত্রিপুরায় পণ্য পরিবহণের জন্য আশুগঞ্জ ও চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করতে চায়।
সোমবার ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরার পালাটানাতে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পালাটানা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দুটি ইউনিটের মোট উৎপাদন ক্ষমতা ৭২৬ মেগাওয়াট, এর মধ্যে বাংলাদেশকে শুরুতে ১০০ মেগাওয়াট ও পরে ক্রমান্বয়ে সেটা বাড়িয়ে ২৫০ মেগাওয়াট পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিক্রি করা সম্ভব বলে ত্রিপুরা সরকার নিশ্চিত করেছে। ত্রিপুরা রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রী মানিক দে জানিয়েছেন, আপাতত পালাটানার প্রথম ইউনিটের পুরো উৎপাদনটাই ত্রিপুরাসহ উত্তর-পূর্বাঞ্চলের অন্যান্য রাজ্যের কাজে লেগে যাচ্ছে। কিন্তু দ্বিতীয় ইউনিটের উৎপাদন শুরু হলে তার অনেকটাই উদ্বৃত্ত থেকে যাবে, যেটা তারা বাংলাদেশকে বিক্রি করতে চান। ভারতের সমগ্র উত্তর-পূর্বাঞ্চলে সবচেয়ে বড় বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র হল পালাটানা। এ কেন্দ্র নির্মাণে ভারি যন্ত্রপাতি বাংলাদেশের আশুগঞ্জ বন্দর ব্যবহার করে স্থলপথে ত্রিপুরায় নেয়া হয়। বাংলাদেশ এ সুযোগ না দিলে দুর্গম এলাকায় এ বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন কঠিন ছিল।