বিজিবি ল্যান্স নায়কের লাশ ফেরত দেয়নি বিজেপি, সীমান্তে উত্তেজনা

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৩০ মে , ২০১৪ সময় ১১:১৫ অপরাহ্ণ

নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে বিজিবি-বিজেপি গোলাগুলি

বান্দরবান প্রতিনিধি ॥ বান্দরবানে 1
বান্দরবানে নাইক্ষ্যংছড়ির দৌছড়ি সীমান্তে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষীর গুলিতে নিহত বর্ডার গার্ড বিজিবি পাইনছড়ি ক্যাম্প কমান্ডার ল্যান্স নায়েক মিজানুর রহমানের লাশ ফেরত দেয়নি মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজেপি। লাশ ফেরত চেয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি ৩১ বিজিবি ব্যাটেলিয়নের আমন্ত্রেনে পতাকা বৈঠকের কথা থাকলেও মিয়ানমার সীমান্তরক্ষীর অনিহায় পতাকা বৈঠকটি ফলপ্রসু হয়নি। ল্যান্স নায়ক মিজানুর রহমানের লাশ ফেরত দেয়ার বিষয়েও নিশ্চিত করে কিছুই জানায়নি মিয়ানমার সীমান্তরক্ষীরা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিজিবি নাইক্ষ্যংছড়ি ৩১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে: কর্নেল শফিকুর রহমান। বর্তমানে ব্যাটেলিয়ন কমান্ডার ঘটনাস্থলের পাশ্ববর্তী লেম্বুছড়ি ক্যাম্পে বিজিবি জোয়ানদের নিয়ে অবস্থান করছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।
বিজিবি জানায়, শুক্রবার বিকালে বিজিবি’র টহল দলের উপর ফের গুলি বর্ষণ করে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী। বিজিবি সদস্যরাও পাল্টা গুলি বর্ষণ করে। দু’দেশের সীমান্তরক্ষীর মধ্যে কয়েক ঘন্টাব্যাপী চলে থেমে থেমে গোলাগুলির ঘটনা। বর্তমানে দৌছড়ি-লেম্বুছড়ি’সহ বাংলাদেশ-মিয়ানমার ১৮৮ কিলোমিটার সীমান্ত জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। দৌছড়ি সীমান্তের ৫১-৫২ নাম্বার সীমান্ত পিলারের কাছে অবস্থান নিয়েছেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বিজিবি এবং মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজেপি। উভয় দেশের সীমান্তরক্ষীর মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় সীমান্তে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। ভারী অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সতর্কবস্থায় রয়েছে বিজিবি। নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারের পাশাপাশি সীমান্ত চৌকিগুলোতে বাড়ানো হয়েছে বিজিবির সংখ্যাও। এদিকে সীমান্তের ওপারে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষীর সঙ্গে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীও জড়ো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। দৌছড়ি সীমান্তের বাসিন্দার শহীদুল’সহ কয়েকজন জানান, সীমান্তবাসীর মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। উভয় দেশের সীমান্তরক্ষীরা সতর্কবস্থায় অবস্থান নিয়েছেন। গোলাগুলির ঘটনায় আতঙ্কে স্থানীয়রা দূরদূরান্তে আত্মীয় স্বজনদের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।
গোলাগুলির বিষয়টি নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, দৌছড়ি সীমান্তে শুক্রবারও বিজিবি-বিজেপি গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। গত বুধবার মিয়ানমার সীমান্তরক্ষীর গুলিতে নিহত পাইনছড়ি ক্যাম্প কমান্ডার ল্যান্স নায়েক মিজানুর রহমানের লাশও শুক্রবার ফেরত দেয়নি বিজেপি। অস্ত্র’সহ বিজিবি সদস্যের লাশ মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী নিয়ে গেছে।

প্রসঙ্গত: গত বুধবার সকালে (২৮মে) নাইক্ষ্যংছড়িতে দৌছড়ি সীমান্তে বিজিবি টহল দলের উপর গুলি বর্ষণ করেন মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে পাইনছড়ি ক্যাম্প কমান্ডার ল্যান্স নায়েক মিজানুর রহমান মারা যান। মৃত্যুর পর অস্ত্র’সহ বিজিবি সদস্যের লাশ নিয়ে যান মিয়ানমার
সীমান্তরক্ষীরা।