বিচার ভয়ে নির্বাচন চায় না-খালেদা জিয়া

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২ জুলাই , ২০১৫ সময় ০৯:০১ অপরাহ্ণ

বেগম খালেদা জিয়াদুর্নীতি আর লুটপাটের বিচারের ভয়ে আওয়ামী লীগ নির্বাচন দিতে চায় না বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। আজ বৃহস্পতিবার হোটেল পূর্বাণী ইন্টারন্যাশনালে ২০ দলীয় জোটের শরিক ইসলামী ঐক্য জোটের ইফতার মাহফিলে যোগ দিয়ে এই অভিযোগ করেন তিনি।

ইফতার মাহফিলে খালেদা জিয়া বলেন, ‘তিনারা তো আছেন ক্ষমতার চিন্তায়। তিনারা এত লুটপাট, এত চুরি, এত চামারি, এত খুন-খারাবি, এত গুম করেছে- মানুষের ভয়ে, বিচারের ভয়ে আজকে তারা ক্ষমতা ছাড়তে চায় না। তাই তারা নির্বাচন দিতে চায় না। তারা জানে যে নির্বাচন দিলে, তাদের ভরাডুবি হবে। মানুষ কীভাবে তাদের প্রত্যাখ্যান করবে, সিটি করপোরেশন নির্বাচনই সে দৃষ্টান্ত দেখিয়ে দিয়েছে। যদি সত্যিকারের নির্বাচনটা হতে পারত সুষ্ঠুভাবে, তাহলে মানুষ তাদের সত্যিকারের জবাব দিত।’

ইফতার মাহফিলে ইসলামী ঐক্য জোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামীর সভাপতিত্বে দোয়া ও ইফতার মাহফিলে জামায়াতে ইসলামীর আমিনুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান কাজী জাফর আহমেদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) শফিউল আলম প্রধান, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম, বাংলাদেশ ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, মুসলিম লীগের সভাপতি এ এইচ এম কামরুজ্জামান, এনডিপি চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা, ডেমোক্রেটিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, সহ দপ্তর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহিন, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

ইসলামী ঐক্য জোট নেতাদের মধ্যে ছিলেন, অ্যাডভোকেট আবদুল লতিফ, মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ, যুগ্ম সম্পাদক মুফতি মোহাম্মদ তৈয়্যব হোসোইনসহ দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা।

এ ছাড়া লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহদাত হোসেন সেলিম, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব খন্দকার গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, লেবার পার্টির মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদী, এনডিপির মঞ্জুর হোসেন ঈসা, খেলাফত মজলিসের গোলাম আকবর প্রমুখ।

ইফতারের আগে টেবিলে টেবিলে ঘুরে নেতা-কর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন খালেদা জিয়া। এ ছাড়া ইফতারের আগে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করে মোনাজাত করা হয়।