বিএনপি করে নাই, নিজাম করেছে-জয়নাল হাজারী/ জয়নাল হাজারী জড়িত-নিজাম

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২২ মে , ২০১৪ সময় ০৮:১১ অপরাহ্ণ

nizam-joynal নিজাম -জয়নালউপজেলা চেয়ারম্যান একরামুল হক হত্যায় জড়িত থাকা নিয়ে সংসদ সদস্য নিজাম হাজারীর অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন ফেনীর সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল হাজারী। তিনি বলেছেন, প্রথম আলো পত্রিকায় নিজাম হাজারীকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, দশ মাস কম সাজা ভোগ করেই নিজাম হাজারী কারাগার থেকে ছাড়া পেয়েছেন। প্রতিবেদনের তথ্য একরামুল হক সরবরাহ করেছেন এমন সন্দেহেই তাকে খুন করা হয়েছে। একরামুল হকের হত্যার পরপরই প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতিতেও দুঃখপ্রকাশ করেন আওয়ামী লীগ দলীয় সাবেক এই সংসদ সদস্য। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতিতে আমি খুবই মর্মাহত। প্রধানমন্ত্রী একরামকে অনেক ভালো জানতো, ভালো চিনতো। হয়তো এজন্য আবেগে ঘটনা শোনার সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিএনপিকে দায়ী করেছেন। কিন্তু এটা বিএনপি করে নাই, নিজাম করেছে। হাজারী বলেন, সম্প্রতি ফেনীতে ২০টিরও বেশি হত্যাকা- হলেও কেউ ধরা না পড়ায় খুনীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাতকারে জয়নালী হাজারী এসব কথা বলেন।

এর আগে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফেনী-২ আসনের এমপি নিজাম উদ্দিন হাজারী দাবি করেছেন, ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং আওয়ামী লীগ নেতা একরামুল হককে হত্যার ঘটনায় সাবেক এমপি জয়নাল হাজারী জড়িত। তাকে (জয়নাল হাজারীকে) রিমান্ডে নিলে এ হত্যাকা-ের পুরো ঘটনা জানা যাবে। বৃহস্পতিবার ফেনীতে এক সংবাদ সম্মেলন তিনি এ মন্তব্য করেন। এ হত্যাকা-ের সঙ্গে নিজের জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেন নিজাম হাজারী। তিনি বলেন, এ হত্যাকা-ের সঙ্গে আমি জড়িত নই। আমার বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদ ভিত্তিহীন। এ হত্যাকা-কে ঘিরে সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে, যা ফেনীর রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও অব্যাহত উন্নয়নকে ব্যাহত করার জন্য সংঘবদ্ধ চক্রের ষড়যন্ত্র। উল্লেখ্য, মঙ্গলবার শতাধিক ক্যাডার অস্ত্র উঁচিয়ে গাড়িতে হামলা করে গুলি করে হত্যা করে ফুলগাজী উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান একরামুল হককে। পরে তাকে গাড়িসহ আগুনে পুড়িয়ে ফেলা হয়।