বিএনপির ‘স্পেশাল রেজিমেন্ট ’

প্রকাশ:| সোমবার, ১৯ আগস্ট , ২০১৩ সময় ০৩:৪৫ অপরাহ্ণ

bnp-flagবাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) এবার ‘স্পেশাল রেজিমেন্ট ’ গঠন করছে। আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখেই এ বাহিনী গঠন করা হচ্ছে। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, দেশের প্রতিটি মহানগরের ওয়ার্ড ও জেলা পর্যায়ের উপজেলা থেকে বিএনপির দুইজন নিবেদিত কর্মীকে প্রশিক্ষণ দেয়ার মাধ্যমে এ ‘বিশেষ রেজিমেন্ট’ গড়ে তোলা হবে।

দলীয় সূত্র থেকে আরও জানা যায়, দেশের সাতটি বিভাগীয় শহরের নয়টি স্থানে ‘স্পেশাল রেজিমেন্ট” সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এর প্রধান সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করবেন দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার সঙ্গে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এএফএম আব্দুল হালিমও থাকবেন।

এরইমধ্যে ৭৫টি সাংগঠনিক জেলায় বিশেষ রেজিমেন্ট গঠনের বিষয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলেও জানা যায়। প্রত্যেক জেলা থেকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা দলের নিবেদিত দু’জন করে কর্মী বাছাই করবেন। বাছাইকৃতরা নির্দিষ্ট ফরম পূরণ করে আগামী ৩১ আগস্টের মধ্যে দলের সহ-দপ্তর সম্পাদক শামীম উর রহমান শামীমের কাছে পাঠাবেন, চিঠিতে এমনই বলা হয়েছে।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য বিএনপির প্রস্তুতির অংশ হিসেবেই এ স্পেশাল রেজিমেন্ট গড়ে তোলা হচ্ছে বলে জানা গেছে। আর এ স্পেশাল রেজিমেন্ট এর প্রশিক্ষণ দেবেন দলের সিনিয়র নেতা ও বুদ্ধিজীবীরা। বিএনপি গণতান্ত্রিক দল হিসেবে আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ চায়। আওয়ামী লীগ যাতে নির্বাচনের ফল কোনোভাবেই নিজেদের করে নিতে না পারে, সেজন্যই এ প্রস্তুতি বলে দলের নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়।

প্রশিক্ষণে কী কী থাকছে সে বিষয়ে বিস্তারিত জানা না গেলেও মূলত নির্বাচনের সময় সারাদেশে ভোটকেন্দ্র পাহারা থেকে শুরু করে নির্বাচনের সামগ্রিক বিষয়ে পারদর্শী করে তোলা হবে বিশেষ রেজিমেন্ট সদস্যদের। ভোটকেন্দ্রে যাতে কোনো ধরনের কারচুপি না ঘটতে পারে সেজন্য এ বাহিনীর সদস্যরা সচেষ্ট থাকবে।

প্রশিক্ষণ শেষে স্পেশাল রেজিমেন্ট সদস্যরা নিজ নিজ এলাকায় গিয়ে দলের অন্যদেরও এ বিষয়ে প্রশিক্ষিত করে তুলবেন।


আরোও সংবাদ