বান্দরবান প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের রানী

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শনিবার, ৯ ডিসেম্বর , ২০১৭ সময় ১০:২৭ অপরাহ্ণ

বান্দরবানকে বলা হয় প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের রাণি। আর বান্দরবানের সুন্দরতম স্পটগুলোর মধ্যে নাফাখুম, আমিয়াখুম ও সাতভাইখুম অন্যতম। নাফাখুম বাংলার নায়াগ্রা ফলস্ হিসেবেও খ্যাত। অপরূপ এই সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে Tour Analyst টিম যাচ্ছে বান্দরবানে।

আমাদের যাত্রা শুরু হবে ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ০৮:০০ টায় এবং শেষ হবে ১৭ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ০৬:০০ টায়।

যা যা দেখবো: নাফাখুম, আমিয়াখুম, ভেলাখুম, নাইখংমুখ, সাতভাইখুম, নিলগিরি(*), চিম্বকপাহাড়(*)

ইভেন্ট ফী : জনপ্রতি ৫৯৫০/=
বুকিং ফী : ৩০০০/= । আগামী ১১ ডিসেম্বর এর ভিতরে বুকিং ফী দিয়ে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।
পার্সোনাল বিকাশ: ০১৬৭ ০০৭ ৯০৮৯ (Hafiz Sarker)
উক্ত নাম্বারে বিকাশ করে Transaction ID জানাতে হবে।
কেউ চাইলে ইভেন্ট হোস্টদের হাতেও ইভেন্ট ফি জমা দিতে পারেন।

বিস্তারিত তথ্যের জন্য যোগাযোগ করুন: ০১৯৬-৩৮৩০১৬৫ (Rihan Sunny Siddiqui)

ট্যুর প্লান:
– ১৩ই ডিসেম্বর, বুধবার : ঢাকা থেকে রাতের নন এসি বাস এ বান্দরবান শহরের উদ্দেশ্যে যাত্রা ।

– ১৪ই ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার : ভোরে বান্দরবান পৌঁছে নাস্তা করে চাঁদের গাড়িতে থানচি রওনা। থানচি থেকে নৌকা নিয়ে রেমাক্রির উদ্দেশ্যে যাত্রা। নৌকা থেকে নামার পরে হেঁটে নাফাখুম হয়ে জিন্নাপাড়াতে যেয়ে বিরতি। রাতে জিন্নাপাড়াতে থাকবো।

‎- ১৫ই ডিসেম্বর, শুক্রবার: জিন্নাপাড়া থেকে আমিয়াখুম, ভেলাখুম, নাইখংমুখ, সাতভাইখুমের উদ্দেশ্যে যাত্রা। রাতে আবার জিন্নাপাড়াতে ফিরবো।

– ১৬ই ডিসেম্বর, শনিবার: জিন্নাপাড়া থেকে রেমাক্রি দিয়ে বড় পাথর হয়ে থানচি। (*) সময় পেলে নিলগিরি ও চিম্বকপাহাড়ে একটু সময় পার করবো।

‎- ১৭ ডিসেম্বর, রবিবার: থানচি থেকে বান্দরবান হয়ে ১৭ ডিসেম্বর সকালে ঢাকা।

** ‎যা যা থাকছে:
– ঢাকা – বান্দরবান – ঢাকা নন এসি বাসের টিকিট
– ‎বান্দরবান – থানচি – বান্দরবান গাড়ির খরচ
– থানচি – রেমাক্রি নৌকা ভাড়া
– ‎গাইড
– সকাল দুপুর রাত খাওয়ার খরচ
– রাতে থাকার ব্যবস্থা
– পারমিশন খরচ

** যা থাকছেনাঃ
– সকল প্রকার ব্যক্তিগত খরচ

** নির্দেশিকা:
– ভ্রমণের সময় যত কম জিনিস নেয়া যায়। হালকা ব্যাগে যতটা না নিলেই নয় ততটা জামাকাপড় নিবেন।
– গামছা নিবেন যেন রোদে মাথায় ঢেকে হাঁটা যায়
– এই ট্রিপ কোনভাবেই আরামদায়ক কোন ট্রিপ নয়। দীর্ঘপথ পাহাড়ি উঁচুনিচু ঢাল বেয়ে হাঁটতে হবে।
– নিজের ব্যাগ, পানির বোতল, খাবার সবকিছু নিজেদেরকেই বহন করতে হবে।
– টর্চ লাইট (বাধ্যতামূলক)

বিঃ দ্রঃ ট্যুর প্লান যে কোন সময় যুক্তিসঙ্গত কারনে পরিবর্তিত হতে পারে।