বান্দরবানে প্রাকৃতিক পাথর উত্তোলন: কারণ দর্শানোর নোটিশ

প্রকাশ:| রবিবার, ১২ ফেব্রুয়ারি , ২০১৭ সময় ০৬:৫৮ অপরাহ্ণ

বান্দরবান প্রতিনিধি :
বান্দরবানের লামায় ঝিরি ঝর্ণা থেকে প্রাকৃতিক পাথর উত্তোলন বন্ধে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে জনস্বার্থে দায়ের করা মামলায় চার সচিব’সহ ১২ জনের বিরুদ্ধে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করেছে আদালত। আজ রোববার লামা উপজেলার ফাসিয়াখালী ইউনিয়নের বাসিন্দার শিমুল জালাই ত্রিপুরা অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে দায়ের করা মামলায় বান্দরবান সিনিয়র সহকারী জেলা ও দায়রা জজ মনিষা মহাজন আদালত এ আদেশ দেন।
অভিযুক্ত আসামীরা হলেন- পাথর ব্যবসায়ী প্রদীপ দাশ, আলী হোসেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালরের সচিব, কনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সচিব, ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) হারুন অর রশীদ, লামা ইউএনও খিন ওয়াননু, লামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি), লামা উপজেলা পরিষদের ভূমি কর্মকর্তা।
এদিকে আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পাথর উত্তোলন বন্ধে কেন অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবেনা, কারণ জানতে চেয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে নোটিশ প্রাপ্তির আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করেছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে বান্দরবান জেলা ও দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত প্রশাসনিক অফিসার বেদারুল আলম জানান, লামা ফাসিয়াখালী মৌজার বাসিন্দার শিমুল জালাই ত্রিপুরা’র পাথর উত্তোলন, পাচার বন্ধে জনস্বার্থে দায়ের করা মামলায় বান্দরবান সিনিয়র সহকারী জেলা ও দায়রা জজ মনিষা মহাজন ১২ জনের বিরুদ্ধে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করেছে।
মামলার বাদী শিমুল জালাই ত্রিপুরা জানান, ফাসিয়াখালী ইউনিয়নে ঝিরি ঝর্ণা থেকে নির্বিচারে প্রাকৃতিক পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে। পাথর উত্তোলনের কারণে ঝিরি ঝর্ণাগুলোর পানি শুকিয়ে যাচ্ছে। পাথর উত্তোলন বন্ধ করা না গেলে পানির জন্য এ এলাকায় একদিন হাহাকার সৃষ্টি হবে। কিন্তু বিষয়টি জানার পর সংশ্লিষ্টরা কোনো ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। এজন্য জনস্বার্থে পাথর উত্তোলন, পাচার বন্ধে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আমি আদালতে মামলাটি করেছি। যার মামলা নং অপর ২০/২০১৭ ইং।

প্রসঙ্গত: বান্দরবানের রুমা, থানছি, রোয়াংছড়ি, লামা, আলীকদম, রুমা এবং সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ঝিরি ঝর্ণা খোদাই করে নির্বিচারে প্রাকৃতিক পাথর উত্তোলনের মহোৎসবে মেতেছে সংঘবব্ধ একটি চক্র। পাথর উত্তোলন বন্ধে বান্দরবানে স্থানীয়রা মানববন্ধন, স্বারকলিপি প্রদান’সহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করলেও উত্তোলন বন্ধ করা যাচ্ছেনা।


আরোও সংবাদ