বান্দরবানে পাহাড়ী বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ওয়া উৎসব শুরু

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১১ জুলাই , ২০১৪ সময় ১০:৫৩ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান ॥
বান্দরবানে পাহাড়ী বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ওয়া উৎসব শুরুবান্দরবানে পাহাড়ী বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ওয়া (বর্ষাবাস) উৎসব শুরু হয়েছে। ওয়া উৎসবকে ঘিরে পাহাড়ে বৌদ্ধ মন্দিরগুলোকে সাঁজানো হয়েছে নতুন সাঁজে। উৎসবের আমেজ বইছে এখন মারমা সম্প্রদায়’সহ পাহাড়ের বৌদ্ধ পল্লীগুলোতে। গতকাল শুক্রবার বিকালে বান্দরবানে বালাঘাটাস্থ স্বর্ণ মন্দির’সহ বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে সমবেত প্রাথর্ণা পূজার মাধ্যমে তিন মাসব্যাপী ওয়া (বর্ষাবাস) উৎসব আরম্ভ হয়েছে। ওয়া উৎসবকে ঘিরে বৌদ্ধ ধর্মালম্বী দায়ক-দায়িকারা এবং বৌদ্ধধর্মালম্বী নারী-পুরুষেরা বৌদ্ধ মন্দিরের ওয়া (বর্ষাবাস) পালনকারী ভিক্ষুদের জন্য মিষ্টান্ন এবং খাবার উৎসর্গ করেন।
পার্বত্য নাগরিক কমিটির বৌদ্ধ ধর্মালম্বী নেতা অংথোয়াই চিং মারমা জানান, আষাঢ়ী পূর্ণিমা থেকে আশ্বিনী পূর্ণিমা পর্যন্ত তিন মাস মারমা সম্প্রদায়’সহ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা মন্দিরে বর্ষাবাস পালন করে থাকেন। পরে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের নিয়ে পাহাড়ী পল্লীগুলোতে কঠিন চীবর (নতুন শুতোয় তৈরি কাপড়) দান উৎসবের আয়োজন করা হয়। পূর্নলাভের আশায় বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা এ দিনগুলোতে বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে ভীড় জমায়।
এদিকে বর্ষাবাস উৎসবকে ঘিরে পাহাড়ী পল্লীগুলোতে উৎসবের রং লেগেছে। বৌদ্ধ মন্দিরগুলোকে সাঁজানো হয়েছে নতুন সাঁজে। কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ মন্দির, রাজগুরু ক্যায়াং এবং বৌদ্ধ ধাতু স্বর্ণ জাদী মন্দিরসহ বিভিন্ন মন্দিরে পাহাড়ী তরুন-তরুনীরা নতুন পোষাকে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের নানা ধরণের খাবার দিয়ে তাদের অপ্যায়ন করেন। এছাড়াও বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে পূজা-অর্চনা পঞ্চশীল প্রার্থনারও আয়োজন চলে বলে জানিয়েছেন বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা।