বাকশাল নতুন রাজতৈনিক দল হিসেবে নিবন্ধন পেতে আবেদন করেছে

প্রকাশ:| সোমবার, ১৫ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ সময় ১০:৫২ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক আওয়ামী লীগ-বাকশাল নতুন রাজতৈনিক দল হিসেবে নিবন্ধন পেতে আবেদন করেছে নির্বাচন কমিশনে (ইসিতে)। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশে বিশ্বাসী এ দলটির মহাসচিব কাজী মো. জহিরুল কাইয়ুম গত সপ্তাহে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের বরাবর এ আবেদন করেছেন। রোববার ইসি সচিবালয়ের নিবন্ধন যাচাই-বাছাই কমিটির কাছে আবেদন পাঠিয়েছেন সিইসি। ইসির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সংবিধানের চতুর্থ সংশোধনের পর ১৯৭৫ সালের জানুয়ারিতে শেখ মুজিবর রহমান বাকশাল গঠন করেন। এ দল গঠনের ৭ মাসের মধ্যে ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়। বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুর পর রাজনৈতিক পটপরিবর্তনের ধারাবাহিকতায় দলটির বিলোপ ঘটে। ১৯৭৫ থেকে থেকে ১৯৭৮ পর্যন্ত আবদুর রাজ্জাক বাকশালের সম্পাদক ছিলেন। পরে ১৯৭৮ থেকে ১৯৮১ পর্যন্ত আবদুর রাজ্জাক আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ১৯৮৩ সালে তিনি উদ্যোগী হয়ে পুনরায় বাকশাল গঠন করেন এবং ১৯৯১ পর্যন্ত তিনি এ বাকশালের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ১৯৯১ সালে এরশাদের পতনের পর তিনি বাকশাল বিলুপ্ত করে আবারও আওয়ামী লীগে ফিরে আসেন। বর্তমানে ফরিদপুর থেকে বাকশালের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ১৫ সদস্যের কমিটির মধ্যে দলের মুখপাত্র শরীফ মো. মনীরুজ্জামানকে চেয়ারম্যান ও কাজী মো. জহিরুল কাইয়ুমকে মহাসচিব করা হয়েছে। সিইসির কাছে আবেদনে কাজী জহিরুল লিখেছেন, রাজনৈতিক দল নিবন্ধনের প্রথম শর্ত অনুযায়ী বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক আওয়ামী লীগ-বাকশাল নিবন্ধন পাওয়ার যোগ্যতা রাখে।