বাংলাদেশ-ইন্দোনেশিয়া সম্পর্ক ঐতিহাসিক ও বন্ধুত্বপূর্ণ

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৭ আগস্ট , ২০১৮ সময় ১১:৪৫ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ ও ইন্দোনেশিয়ার সম্পর্ক ঐতিহাসিক ও বন্ধুত্বপূর্ণ। উভয় দেশ ভবিষ্যতেও সহযোগিতার এ ধারাবাহিকতা বজায় রাখবে। এই অঞ্চলের শান্তি, সমৃদ্ধি ও উন্নয়ন নিশ্চিতে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করবে।

শুক্রবার (১৭ আগস্ট) হোটেল দি ওয়েস্টিনে ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় দিবস উপলক্ষে পিএইচপি পরিবার আয়োজিত অনুষ্টানে ঢাকায় নিযুক্ত ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত রিনাপি সোয়েমারনো এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ইন্দোনেশিয়ার ৭৩তম স্বাধীনতা দিবসে আমি সবাইকে শুভেচ্ছা জানায়। এই দিনে সুন্দর একটি আয়োজনের জন্য আমি পিএইপি পরিবারকে ধন্যবাদ জানাই।

পিএইচপি পরিবারের চেয়ারম্যান সূফী মোহম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, অন্ধকার কখনো অন্ধকার দূর করতে পারে না। অন্ধকার দূর করতে আলোর প্রয়োজন। আল্লাহ বলেছেন, তোমরা অর্থ উপার্জন করো কিন্তু মন্দ কাজে সেটি ব্যবহার করো না। কারণ অর্থ কখনো সুখ আনতে পারে না।

তিনি বলেন, ইন্দোনেশিয়া বাংলাদেশের অত্যন্ত বন্ধুত্বপূর্ণ দেশ। বিশ্বের যে কয়টি দেশ স্বাধীনতার পর বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দিয়েছে তার মধ্যে ইন্দোনেশিয়া একটি। আমাকে বাংলাদেশের অনরারী কনসাল নিয়োগ করায় ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতিসহ ইন্দোনেশিয়ার জনগণকে ধন্যবাদ জানাই। আমি আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট থাকবো। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এখানে মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সব ধর্মের মানুষ মিলে মিশে থাকে। বাংলাদেশে প্রতিহিংসা, সন্ত্রাসবাদের কোন স্থান নেই।

তিনি বলেন, আমাদের শুধু অর্থ উপার্জন করলেই হবে না। আমাদের নিজেদের চরিত্রকেও গঠণ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহম্মেদ তৌফিক, প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব মো. আব্দুল করিম, অধ্যাপক মাজহারুল হক, অধ্যাপক ড. কেএম সাইফুল ইসলাম খান, পিএইচপি পরিবারের পরিচালক আমীর হোসেন সোহেল প্রমূখ


আরোও সংবাদ