বাংলাদেশের আকাশসীমায় উড়োজাহাজের ভেতর ইন্টারনেট সার্ভিস

প্রকাশ:| শনিবার, ২৪ আগস্ট , ২০১৩ সময় ০৬:৪১ অপরাহ্ণ

বিমানবাংলাদেশের আকাশসীমায় উড়োজাহাজের ভেতর ইন্টারনেট সার্ভিস ও ইন্টারনেট টেলিফোন সেবা দেওয়ার অনুমতি পেয়েছে সুইজারল্যান্ডের কোম্পানি ‘অন এয়ার’।এবার বাংলাদেশেও উড়োজাহাজে ইন্টারনেট

ফলে এখন থেকে উড্ডয়নের পর উড়োজাহাজে বসেই ইন্টারনেট সার্ভিস ব্যবহার করে সবার সঙ্গে যোগাযোগ করা যাবে। ইন্টারনেট টেলিফোনে কথাও বলা যাবে।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) ১৫৭তম সভায় এ অনুমতি দেওয়া হয়েছে। চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে অনুষ্ঠিত এ সভার কার্যবিবরণী সম্প্রতি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সরকারি দফতরে পাঠানো হয়েছে।

বিটিআরসির চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস সভায় সভাপতিত্ব করেন। এ সিদ্ধান্তের ফলে ‘অন এয়ারে’র সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ১০টি আন্তর্জাতিক এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের আকাশসীমায় তিন হাজার মিটার (১০ হাজার ফুট) উচ্চতায় যাত্রীদের ইন্টাননেট সেবা দিতে পারবে। ১ হাজার ৮০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডে এ সেবা দেওয়ার জন্য বার্ষিক দুই হাজার মার্কিন ডলার পরিশোধ করতে হবে বাংলাদেশকে।

একই সভায় সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে বেতার তরঙ্গ বরাদ্দের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা সংস্থার ছাড়পত্র প্রদানে বিলম্বের জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করা হয় এবং নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ছাড়পত্র না পাওয়া গেলে নিরাপত্তার সংস্থার আপত্তি নেই ধরে নিয়ে তরঙ্গ ব্যবহারের চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সুইজারল্যান্ডের প্রতিষ্ঠান ‘অন এয়ার’ তাদের আবেদনে জানায়, সংস্থাটি উড়োজাহাজ উড্ডয়নের পর তিন হাজার মিটার উচ্চতায় ১ হাজার ৮০০ মেগাহার্টজ মিটার ব্যান্ডে স্যাটেলাইট লিঙ্ক, আর্থ স্টেশন ব্যবহার করে এই সেবা প্রদান করবে এবং স্থানীয় মোবাইল অপারেটরের বিলিংয়ের মাধ্যমে (রোমিং সেবার মতো) গ্রাহক পর্যায়ে ব্যবহার মূল্য সমন্বয় করা হবে।