বলছি বর্ষার সিল্ক শাড়ির কথা

প্রকাশ:| সোমবার, ২৩ জুন , ২০১৪ সময় ০৮:০৭ অপরাহ্ণ

হাবীবাহ নাসরীন>>সিল্ক শাড়িদেখতে ছিমছাম আর জমকালো, পরতে আরামদায়ক। হালকা বলে পানিতে ভিজে গেলেও আবার দ্রুত শুকিয়ে যায়। বলছি সিল্ক শাড়ির কথা। একসঙ্গে এতগুলো প্রাপ্তি খুব কম পোশাকেই মেলে। আর তাই বর্ষার এ সময়ে অধিকাংশ নারী, বিশেষ করে যাদের কমবেশি প্রতিদিন ঘর থেকে বেরোতে হয় তারা যে সিল্ক শাড়িকেই বেছে নেবেন, তা সহজেই বোঝা যায়।

সিল্ক শাড়িতে আভিজাত্য ও রুচিশীলতার ছোঁয়া থাকায় পরা যায় অফিস কিংবা পার্টিতে। সিল্কের আছে নানা ধরন। যেমন- সিল্ক শিফন, টাঙ্গাইল সিল্ক, সিল্ক শার্টিন, মাইসোর সিল্ক, সাউথ ইন্ডিয়ান সিল্ক, বনসাই সিল্ক, কাশ্মীরি সিল্ক, সপুরা সিল্ক, সিল্ক কোটা, অ্যান্ডি সিল্ক ও সফট সিল্ক। চাইলে পাবেন ভারি কাজের দেখাও।

যেমন ব্লক, স্ক্রিন প্রিন্ট, অ্যামব্রয়ডারি, কারচুপি, মিরর, জরি ও চুমকি। আর বেছে নিতে পারেন মনের মতো রঙ- সবুজ, নেভি ব্লু , ম্যাজেন্টা, খয়েরি, লাল, বেগুনি, কালো কিংবা সোনালি। তবে দিনের বেলার যে কোনো পার্টিতে বা অফিসে পরার জন্য বেছে নিন একটু হালকা রঙের সিল্ক শাড়ি। পরতে পারেন গেরুয়া, সাদা, কলাপাতা রঙ, কমলা, নীল, গোলাপি, আকাশি ও কুসুম হলুদ রঙের শাড়ি। পাড়ে বৈচিত্র্য আনতে ব্যবহার করা হয় কাতানের পাড়, নেটের পাড়, হাতের কাজের পাড়সহ নানা রকম সিকুইন। এছাড়া মোটিফেও কমতি নেই। কাঁথা স্টিচের মাধ্যমে গ্রামবাংলার কাহিনী তুলে ধরা জমিনের সিল্ক বেশ জনপ্রিয়।

প্রায় সব ফ্যাশন হাউসেই পাবেন সিল্ক শাড়ি। এ বর্ষায় সিল্ক শাড়ির সঙ্গে সাজ কেমন হবে তা জানালেন রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন। সিল্ক শাড়ির সঙ্গে হালকা ও ভারি দুই রকম সাজই মানানসই। তবে এখন বর্ষাকাল, সে কথাটিও মাথায় রাখতে হবে। বর্ষার এ সময়টায় অতিরিক্ত সাজগোজ না করাই ভালো। চুল ছাড়া হালকা পাফ ও স্পাইরাল এবং খোঁপা করলে ভালো লাগবে। যদি কোনো পার্টিতে যেতে চান তবে চোখটাকে স্মোকি করলে ভালো লাগবে। চোখে ভারি কাজল দিতে পারেন, তবে মাশকারা এড়িয়ে যাওয়াই ভালো। চিকবোনে বুলিয়ে নিতে পারেন হালকা বস্নাশন। গলায় লম্বা মালা বা চেইনের সঙ্গে লকেট বেশ মানাবে।

ফ্যাশন হাউসগুলো বর্ষা উপলক্ষে তৈরি করেছে নান্দনিক সব সিল্কের শাড়ি। অ্যান্ডি, ধুপিয়ান, জয় সিল্ক, র সিল্ক এবং রাজশাহীর সফট সিল্কের শাড়ি পাওয়া যাচ্ছে। নকশা হিসেবে প্রাধান্য পেয়েছে বস্নক, স্ক্রিন প্রিন্ট, কারচুপি, ভারি মেশিন অ্যামব্রয়ডারিসহ মিঙ্ড মিডিয়ার কাজ। বিবিয়ানার স্বত্বাধিকারী ও ফ্যাশন ডিজাইনার লিপি খন্দকার জানান, সিল্ক শাড়ি যেহেতু অনেক আভিজাত্যময় একটি পোশাক, তাই আমরা এর রঙ ও নকশার ক্ষেত্রে বেশি গুরুত্ব দিই। সিল্ক শাড়িতে আমরা সাধারণত স্ক্রিন প্রিন্ট ও কারচুপির কাজ বেশি করি। বিভিন্ন অনুষ্ঠানের গুরুত্ব বুঝে হালকা ও ভারি কাজ করা হয়েছে বিবিয়ানার শাড়িগুলোতে।


আরোও সংবাদ