বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তি বিশ্বের শিক্ষা পদ্ধতির মৌলিক উপাদান

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর , ২০১৬ সময় ০৭:২৭ অপরাহ্ণ

তথ্য প্রযুক্তিকে (আইসিটি) বর্তমান বিশ্বের শিক্ষা পদ্ধতিতে একটি মৌলিক উপাদান হিসেবে উল্লেখ করে স্পেনের জারাগোজা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষক ড. লুই ভি ক্যাসালো বলেছেন, বিশ্বব্যাপী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার দিন দিন বাড়ছে। সক্রিয় এবং অভিজ্ঞতালবদ্ধ যে কোন শিক্ষণ পদ্ধতিতে তথ্য প্রযুক্তি এখন একটি অপরিহার্য উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে।

%e0%a6%a4%e0%a6%a5%e0%a7%8d%e0%a6%af-%e0%a6%aa%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%af%e0%a7%81%e0%a6%95%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%bf-%e0%a6%ac%e0%a6%bf%e0%a6%b6%e0%a7%8d%e0%a6%ac%e0%a7%87%e0%a6%b0-%e0%a6%b6বৃহস্পতিবার দুপুরে চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির (সিআইইউ) শিক্ষকদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে এসব কথা বলেন স্প্যানিশ এই গবেষক। স্কাইপির মাধ্যমে সুদূর স্পেন থেকে প্রধান আলোচক হিসেবে অনুষ্ঠানে সরাসরি অংশগ্রহণ করেন তিনি।

‘এক্টিভ লার্নিং: ইউজিং নিউ টেকনোলজিস্ ইন হায়ার এডুকেশন’ শীর্ষক এই স্কাইপি সেমিনারের আয়োজন করে ছিল সিআইইউ’র ‘সেন্টার অফ একসিল্যান্স ইন টিচিং এন্ড লার্নিং (সিইটিএল)’। দু’টি দেশের গবেষকদের মধ্যে জ্ঞান আদান প্রদানের লক্ষ্যে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে এসময় সিআইইউ ট্রাস্টি বোর্ড সদস্য এ কাইয়ূম খান এবং উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

ড. লুই ভি ক্যাসালো বলেন, স্পেনের জারাগোজা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং এর কোর্সগুলোতে সর্বাধুনিক দু’টি প্রযু্ক্তি ইউটিউব এবং টুইটার ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। ইউটিউব বহুল ব্যবহৃত সাইটগুলোর মধ্যে বর্তমান বিশ্বের তৃতীয় এবং ৩২০ মিলিয়ন টুইটার ব্যবহারকারী প্রতিদিন গড়ে ৫০০ মিলিয়ন বার টুইট করে থাকে।

তিনি বলেন, শিক্ষা ক্ষেত্রে এই প্রযুক্তিগুলো ব্যবহারের লক্ষ্য হচ্ছে এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের সামাজিক, ক্রস-কারিকুলাম ও তথ্য প্রযুক্তিগত সামর্থ বৃদ্ধি করা এবং তাদের মাঝে সৃষ্টিশীল কাজের উম্মেষ ঘটানো। এসব প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে বর্তমান বিশ্বের বিভিন্ন ইস্যু এবং প্রাসঙ্গিক বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে হালনাগাদ থাকতে পারছে। এছাড়া, তাত্ত্বিক এবং ব্যবহারিক বিষয়সমূহের মধ্যেও দূরত্ব কমিয়ে আনছে। শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা তাদের কোর্স সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সহজে আলোচনা করতে পারছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা প্রদানের ক্ষেত্রে নতুন প্রযুক্তি গ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ করে ড. ক্যাসালো বলেন, শিক্ষার্থীরা ব্যবহারিক এবং অভিজ্ঞতালদ্ধ জ্ঞান থেকেই বেশি শিখে এবং এক্ষেত্রে নতুন প্রযুক্তির ব্যবহার তাদের দক্ষতা উন্নয়নে সহায়ক হতে পারে। বিশ্বের যে কোন বিশ^বিদ্যালয়ই তাদের শিক্ষা ক্ষেত্রে এই প্রযুক্তিগুলির ব্যবহার করতে পারে।

অনুষ্ঠানে সিআইইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী ড. ক্যাসালোকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, এধরনের আয়োজনের মাধ্যমে সেমিনারে অংশগ্রহণকারীরা উপকৃত হবে। তিনি তাঁকে সিআইইউ পরিদর্শনের আমন্ত্রণ জানান।

সেমিনারে সঞ্চালকের দায়িত্বে পালন করেন সিআইইউ’র মার্কেটিং বিভাগের প্রধান এবং সিইটিএল- এর পরিচালক ড. মাহমুদ হাসান। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় অনুষদের ডিন ড. নুরুল আবসার নাহিদসহ বিভিন্ন বিভাগের প্রধান, শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং কর্মকর্তারা অংশ নেন।