বরফের সন্ধান পেল চাঁদের মাটিতে!

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শুক্রবার, ৩১ আগস্ট , ২০১৮ সময় ১১:১০ পূর্বাহ্ণ

চাঁদের মাটিতে প্রচুর পরিমাণে বরফ রয়েছে তা শতভাগ নিশ্চিত হলেন বিজ্ঞানীরা। ২০ আগস্ট শনিবার, প্রসিডিংস অব ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সে প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে চাঁদের মাটিতে বরফ থাকার প্রমাণ নিশ্চিত করা হয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই এমন খবরে উচ্ছ্বসিত মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। এই চমকপ্রদ তথ্য সামনে আনার কৃতিত্ব ইসরোর। তাদের পাঠানো মহাকাশযান চন্দ্রায়ন-১-এর তোলা ছবি থেকেই চাঁদে বরফের অস্তিত্ব টের পেলেন নাসার মহাকাশ বিজ্ঞানীরা।

গত মঙ্গলবার নাসা তাদের টুইটার হ্যান্ডেলে স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছে চাঁদের দুই মেরুতেই রয়েছে বরফ। দক্ষিণ মেরুতে বড় বড় গর্তের মধ্যে বরফ জমাট বেঁধে রয়েছে। উত্তর মেরুতে বরফ বিক্ষিপ্ত ভাবে ছড়িয়ে রয়েছে। চন্দ্রযান-১-এর পাঠানো ছবি থেকে এই দৃশ্য স্পষ্ট দেখা গেছে।

নাসার চন্দ্রবিজ্ঞানী সারাহ নোবেল রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ঠিক কতটা জল রয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। চাঁদের মেরুতে সূর্যের আলো পৌঁছায় না, এই অঞ্চলগুলো গাঢ় অন্ধকার এবং অবিশ্বাস্য রকমের হিম শীতল। তাপমাত্রা সাধারণত মাইনাস ২৬০ ডিগ্রি ফারেনহাইট। অতীতে বিজ্ঞানীরা চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে বরফের সম্ভাবনার পরোক্ষ প্রমাণ পেয়েছিলেন।

চাঁদের মেরুতে বরফ রয়েছে তা বিজ্ঞানীরা এবার পুরোপুরি নিশ্চিত হয়েছেন, ২০০৮ সালে ভারতের চন্দ্রায়ন-১ মহাকাশযানের মাধ্যমে চাঁদে প্রেরিত নাসার মুন মিনারেলজি ম্যাপার অভিযানের এমথ্রি যন্ত্র কর্তৃক সংগৃহীত তথ্য বিশ্লেষণ করে। এমথ্রি হচ্ছে, একটি ইমেজিং স্পেকট্রোমিটার, যার হালকা তরঙ্গদৈর্ঘ্য পরিমাপের ক্ষমতা রয়েছে। এটি বিজ্ঞানীদের উপকরণ গঠন সম্পর্কে জানিয়েছে। এমথ্রি বেশ সফল একটি যন্ত্র। ২০০৯ সালে চাঁদে পানি আবিষ্কারে বিজ্ঞানীদের সহায়তা করেছিল এমথ্রি।

চাঁদের বিস্তীর্ণ এলাকায় বরফের অস্তিত্ব দেখতে পাওয়ার পরে স্বাভাবিক ভাবেই চাঁদে জলের সন্ধান পাওয়া নিয়েও আশা বাড়ছে। এর আগেও চাঁদে বরফ থাকার সম্ভাবনার কথা বলেছিলেন বিজ্ঞানীরা। এবারের ছবি সামনে আসার পরে সেই সম্ভাবনা আরও জোরালো হল।

সূত্র: সিনেট