বরকলে ছাত্রলীগের সম্মেলনে সংঘর্ষে আহত-৭

প্রকাশ:| শনিবার, ২৩ মে , ২০১৫ সময় ০৬:১৭ অপরাহ্ণ

রাঙামাটি প্রতিনিধিঃ রাঙামাটির বরকল উপজেলায় ছাত্রলীগের সম্মেলনে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ৭জন আহত হয়েছেন। সংঘর্ষে আহতরা হলেন জেলা যুগ্ন সম্পাদক আকতারুজ্জামান, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম দুলাল, আইন বিষয়ক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, উপজেলা প্রজন্মলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম আরিফ ও আইমাছড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম সুমন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ এমরান রোকন, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ইসলাম সাইদুল। আহতদের মধ্যে ৫জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন।
শনিবার বরকল উপজেলা সদরে উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স এর পুরাতন হলে উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন চলাকালে দুপুর ১টার দিকে এ সংঘর্ষ হয়। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায় সম্মেলন চলাকালে কমিটি ঘোষনার আগে উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন সম্পাদক রাজন কর্মকার ও উপজেলা বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের আহবায়ক আরিফুল ইসলামের সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনার একপর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। চলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, এ সময় হলরুমে ব্যাপক ভাংচুর চালায় ছাত্রলীগ কর্মীরা। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় সম্মেলন স্থগিত করে ছাত্রলীগের জেলা নেতৃবৃন্দ রাঙামাটি ফিরে এসেছেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বরকল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল করিম জানান ছাত্রলীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে তাদের নিজেদের মধ্যে সংঘর্ষে ৩জন আহত হয়েছে। এ ব্যপারে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ এমরান রোকন বলেন, তেমন কিছুই হয়নি, সম্মেলনে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীদের মধ্যে সামান্য ভুলবুঝাবুঝি হয়েছে মাত্র। বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের রাঙামাটি জেলা আহবায়ক এন.এম জাহাঙ্গীর আলম এ বিষয়ে বলেন “বরকলে ছাত্রলীগের সম্মেলনে কি হয়েছে আমার জানা নেই, তবে সেখানে বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের কোন কমিটি নেই, কেউ যদি নাম ভাঙ্গিয়ে কিছু করে তাদের ব্যাপারে ছাত্রলীগ আইনগত ব্যবস্থা নিতে পারে”।