বন্ধ ঘোষণার পর কারখানায় অবস্থান পোশাক শ্রমিকদের

প্রকাশ:| শনিবার, ১ এপ্রিল , ২০১৭ সময় ১০:০২ অপরাহ্ণ

শিল্পপতি অবসরপ্রাপ্ত মেজর আব্দুল মান্নানের মালিকানাধীন পাইওনিয়ার ড্রেসেস লিমিটেড নামে একটি পোশাক কারখানা আকস্মিকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার (০১ এপ্রিল) সকালে কারখানায় এসে বন্ধের খবর জানতে পেরে উত্তেজিত হয়ে পড়েছেন শ্রমিকরা।  সন্ধ্যা ৭টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শ্রমিকরা কারখানার সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে যাচ্ছেন।

নগরীর ‍বায়েজিদ বোস্তামি থানার নাসিরাবাদে চা বোর্ডের পেছনে একই ভবনে মান্নানের মালিকানাধীন আরও একটি পোশাক কারখানা আছে।  গ্লোরি ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড নামে এই কারখানাটি অবশ্য চালু আছে।

বায়েজিদ বোস্তামি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, বৃহস্পতিবার শ্রমিকরা কারখানায় কাজ করেছিল।  শনিবার এসে দেখে কারখানা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।  এটা দেখেই প্রায় দুই হাজার শ্রমিক উত্তেজিত হয়ে পড়েছে।

‘সামনে রমজান।  ঈদ আসছে।  এই অবস্থায় বেকার হয়ে যাওয়ায় শ্রমিকদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে।  যদিও মালিকপক্ষ নিয়ম অনুযায়ী শ্রমিকদের পাওনা বুঝিয়ে দেবেন বলেছেন।  কিন্তু শ্রমিকরা এতে আশ্বস্ত হতে পারছেন না।  তারা মালিকের সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে চান।  কিন্তু মালিক আসছেন না।  এজন্য শ্রমিকরা কারখানা ছেড়ে যাচ্ছেন না। ’ বলেন ওসি

পুলিশ সূত্রমতে, গ্লোরি ইন্ডাস্ট্রিজ চালু থাকলেও সেখানকার শ্রমিক-কর্মচারিদের আশংকা, এক মাসের মধ্যে সেটিও বন্ধ ঘোষণা করা হবে।  এজন্য তারাও পাইওনিয়ারের শ্রমিকদের সঙ্গে সংহতি জানিয়েছেন।

কারখানার সামনে অবস্থান নিয়ে শ্রমিকরা মাঝে মাঝে স্লোগান দিচ্ছেন।  মালিকপক্ষ এসে শ্রমিকদের সঙ্গে কথা না বলা পর্যন্ত তারা কারখানা ছেড়ে না যাবারও ঘোষণা দিয়েছে।

কারখানায় ‍অপ্রীতিকর পরিস্থিতির আশংকায় শিল্প পুলিশ এবং থানার টিমসহ শতাধিক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওসি।