বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ হবে

প্রকাশ:| রবিবার, ১৯ মার্চ , ২০১৭ সময় ০৯:৩১ অপরাহ্ণ

জেলা প্রশাসক মোঃ সামসুল আরেফিন
ইসলামিক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয় কর্তৃক আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস’১৭ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক জনাব মোঃ সামসুল আরেফিন উপরোক্ত মন্তব্য করেন। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে আরো বলেন ইসলাম শান্তির ধর্ম যারা এই পবিত্র ধর্মকে ব্যবহার করে নিরীহ মানুষকে হত্যাকরে তাদের ব্যাপারে সজাগ থাকার তিনি আহবান জানান। ইসলামের প্রকৃত অনুসারী হিসাবে শিশুদের গড়ে তোলা আমাদের ইমানী দায়িত্ব। উপস্থিত ওলামা মাশায়েখ ও মহানগরের বিভিন্ন মসজিদের ইমামদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন-জুমআর নামাজের খুতবার আলোচনায় পবিত্র কোরআন হাদিসের আলোকে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের কুফল সম্পর্কে আলোচনা করে এলাকায় শান্তি শৃংঙ্খলা বজায় রাখা আমাদের সকলের দায়িত্ব। ইসলামিক ফাউন্ডেশন-এর জেলা পর্যায়ের এ অনুষ্ঠান ছাড়াও প্রতি উপজেলায় কিরাত, হামদ-নাত, রচনা ও কুইজ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয় এবং বিজয়ীদের মাঝে সনদ ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। ইসলামিক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম পরিচালিত মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের ২৪২৭টি কেন্দ্রে অদ্য সকালে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, মিলাদ, দোয়া ও তাবারুক বিতরণের ব্যবস্থা করা হয়। সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক আবুল হায়াত মুহাম্মদ তারেক বলেন- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ইসলামিক ফাউন্ডেশন-এর ৬৪ জেলা ও বিভাগীয় কার্যালয় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। তিনি আরো বলেন- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের জাতীয় ইতিহাসে এক অবিশ্বরণীয় ব্যক্তিত্ব। জমিয়তুল ফালাহ্ মসজিদ ও কমপ্লেক্স এর সহকারী পরিচালক মোঃ সেলিম উদ্দিন-এর পরিচালনায় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমী চট্টগ্রাম-এর উপ-পরিচালক বোরহান উদ্দীন মোঃ আবু আহসান। আলোচক হিসেব বক্তব্য রাখেন-বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ চট্টগ্রাম-এর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বদিউল আলম, চট্টগ্রাম দৈনিক পূর্বদেশের সহ-সম্পাদক অধ্যক্ষ আবু তালেব বেলাল। অনুষ্ঠানে প্রবন্ধ উপস্থাপনা করেন- ইসলামিক ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের ফিল্ড সুপারভাইজার মোঃ জয়নাল আবেদীন। কুইজ ও রচনা প্রতিযোগিতায় ১ম,২য় ও ৩য় স্থান অধিকারীদের মাঝে প্রধান অতিথি মাননীয় জেলা প্রশাসক সনদ ও পুরুস্কার বিতরণ করেন। দোয়া ও মুনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।