বকেয়া বেতনের দাবীতে আন্দোলনে গার্মেন্টস শ্রমিকরা

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১০ মে , ২০১৬ সময় ০৮:৪০ অপরাহ্ণ

পটিয়া
চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক দুই ঘন্টা অবরোধ
পটিয়া প্রতিনিধি॥
পটিয়া উপজেলার শিকলবাহা চৌমুহনি এলাকার নিউকন গার্মেন্টসের শ্রমিকদের তাদের ৩ মাসের বকেয়া বেতন মালিকপক্ষ পরিশোধ না করায় আন্দোলনে নেমেছে শ্রমিকরা। মঙ্গলবার সকালে ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক অবরোধ করেছে গার্মেন্টেসের শ্রমিকরা। এসময় কোন গাড়ি ভাংচুর কিংবা কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। তবে অবরোধ চলাকালিন সময়ে আশে পাশে দুই কিলোমিটার মহাসড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।
জানা যায়, উপজেলার শিকলবাহা চৌমুহনি এলাকার কোরিয়া ভিত্তিক সংস্থা কর্তৃক পরিচালিত নিউকন গার্মেন্টসে প্রায় ৫ শতাধিক শ্রমিক নিয়োজিত। চলতি বছরের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারী মাসের বেতন দিলেও মার্চ-এপ্রিল মাসের বেতনসহ মোট দুই মাস ১০ দিনে বেতন বকেয়া রাখে মালিকপক্ষ। গেল এপ্রিল মাসের ১৩ তারিখে মালিকপক্ষ বকেয়া বেতন পরিষদ না করায় মালিকপক্ষকে আল্টিমেটাম দিলে মালিকপক্ষ ১৮ এপ্রিল বেতন পরিষদের আশ্বাস দেয়। এরপর থেকে মালিকপক্ষ আত্মগোপনে চলে যায়। এরপর গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে বকেয়া বেতনের দাবীতে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়ক অবরোধ করে। এসময় আশে পাশের প্রায় দুই কিলোমিটার সড়ক তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে এ এস পি সার্কেল (পটিয়া), পটিয়া থানার ওসিসহ পটিয়া থানা পুলিশ ও চট্টগ্রাম শিল্প পুলিশের প্রায় শতাধিক সদস্য এসে অবরোধ উঠিয়ে নেয়। পরে মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় পটিয়া থানায় মালিকপক্ষ ও শ্রমিকপক্ষের মধ্যে পুলিশের মধ্যস্থতায় একটি সমঝোতা বৈঠক হওয়ার প্রক্রিয়া চলে। বৈঠকে চট্টগ্রাম পুলিশ সুপার দক্ষিণ হাবিবুর রহমান, সহকারী পুলিশ সুপার শামীম হোসেন ও পটিয়া থানার ওসি রেফায়েত উল্লাহ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বৈঠকটি চলছিল। সীমা নামের এক শ্রমিক জানায়, বিগত দুই মাস ১০ দিনের বেতন বকেয়া রাখায় আমাদের খাওয়া দাওয়াসহ পরিবার চালানো দুস্কর হয়ে যাচ্ছে। বাধ্য হয়েই আন্দোলনে নামতে হয়েছে আমাদের।
পটিয়া থানার ওসি রেফায়েত উল্লাহ চৌধুরী জানান, অবরোধের খবর পেয়ে পটিয়া থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। বকেয়া বেতন না পাওয়ায় মূলত শ্রমিকরা আন্দোলন শুরু করে। দুপক্ষকেই আমরা বসে সমাধানের চেষ্টা চালাচ্ছি।