ফেনীতে ছাত্রদল-পুলিশ সংঘর্ষে আহত ২০, আটক ২৮

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২ জানুয়ারি , ২০১৫ সময় ১০:৪৯ অপরাহ্ণ

ফেনীতে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠা বাষির্কীর র‌্যালি থেকে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় পুলিশের সঙ্গে ছাত্রদল কর্মীদের দফায় দফায় সংঘর্ষে কমপক্ষে ২০জন আহত হয়েছেন। এসময় ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ২৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার বিকেলে ঘণ্টাব্যাপী এ সংঘর্ষে শহরের শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়ক অবরোধ করে ২০টির অধিক যানবাহন ভাঙচুর করে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা। এসময় গুলিবর্ষণ ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও দলীয় সূত্রমতে, বিকেলে ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর র‌্যালি বের হলে সেখানে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। এসময় পুলিশ র‌্যালিতে বাধা সৃষ্টি করলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। নেতাকর্মীরা সড়কের দু’পাশে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের কাঁচ ভাঙচুর করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ শটগানের গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।

এক পর্যায়ে ছাত্রদলকর্মীরা পিছু হটে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনী মহিপাল অংশে সড়ক অবরোধ করে গাড়ি ভাঙচুর করে। সংঘর্ষে ছাত্রদল কর্মী, মহিলা, শিশু ও সাধারণ পথচারীসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে রয়েছে ছাত্রদলকর্মী রুবেল, আলমগীর হোসেন, সোহাগ, বেলাল, ফটিকসহ ২০ জন।

ফেনী জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ছালাহ উদ্দিন মামুন জানান, পুলিশ বিনা উসকানিতে ছাত্রদলের র‌্যালিতে গুলিবর্ষণ করেছে। এসময় পুলিশের গুলি ও টিয়ারশেলের আঘাতে অন্তত ৩০ জন আহত হয়।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব মোরশেদ জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১০ জনকে আটক করেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কতটি টিয়ারশেল ছোড়া হয়েছে তা এখনও বলা যাচ্ছেনা।