ফতুল্লায় হতাশার একদিন

প্রকাশ:| বুধবার, ১০ জুন , ২০১৫ সময় ০৮:৪৬ অপরাহ্ণ

বিজয় ও ধাওয়ানবাংলাদেশ সফরের শুরুটা দারুণ হলো ভারতের। একমাত্র টেস্টের প্রথম দিনে স্বাগতিক বোলারদের হতাশ করে অতিথিদের দারুণ সূচনা এনে দিয়েছেন শিখর ধাওয়ান ও মুরালি বিজয়। বুধবার প্রথম দিনশেষে ভারতের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ২৩৯ রান। তৃতীয় টেস্ট শতক করে ১৫০ রানে অপরাজিত ধাওয়ান। অন্যপ্রান্তে বিজয় এগিয়ে যাচ্ছেন ষষ্ঠ টেস্ট শতকের দিকে। দিন শেষে তিনি ৮৯ রানে অপরাজিত। বৃষ্টির কারণে প্রায় চার ঘণ্টা খেলা বন্ধ ছিল। তাই ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে প্রথম দিনে ৫৬ ওভারের বেশি খেলা হতে পারেনি।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই সাবলীল ছিলেন ধাওয়ান ও বিজয়। বিশেষ করে ধাওয়ান। এই বাঁ-হাতি ওপেনারের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে রানের চাকা দ্রুত ঘুরছিল। বাংলাদেশের দুর্ভাগ্য, দিনের ২৪তম ওভারে খেলা বন্ধ হওয়ার ঠিক এক বল আগে ধাওয়ানকে আউট করার দারুণ সুযোগ এসেছিল। তাইজুল ইসলামের বাঁ-হাতি স্পিনে শর্ট মিডউইকেটে ক্যাচ দিয়েছিলেন ধাওয়ান। কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও বল মুঠোবন্দি করতে পারেননি শুভাগত হোম।

খেলা আবার শুরু হওয়ার পর শতক পূর্ণ করতে সমস্যা হয়নি ধাওয়ানের। তাঁর ১৫৮ বলের দারুণ ইনিংসটা সাজানো ২১টি চারে। বিজয় অবশ্য এতটা আক্রমণাত্মক ছিলেন না। এই ডানহাতি ওপেনারের ১৭৮ বলের দৃঢ়তাভরা ইনিংসে চারের সংখ্যা আটটি। দিনের একমাত্র ছক্কা অবশ্য বিজয়ের ব্যাট থেকেই এসেছে, জুবায়ের হোসেনকে মিড-অন দিয়ে উড়িয়ে মেরে।

শক্তিশালী স্পিন আক্রমণ নিয়ে ভারতের মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। দুই বাঁ-হাতি সাকিব আল হাসান ও তাইজুল ইসলাম আর শুভাগত হোমের অফব্রেকের সঙ্গে যোগ হয়েছে জুবায়ের হোসেনের লেগব্রেক। প্রথম একাদশে একমাত্র পেসার মোহাম্মদ শহীদ। তাই রুবেল হোসেনের সুযোগ হয়নি দলে। টেস্ট অভিষেক হয়েছে উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান লিটন দাসের। পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনা টেস্টে বাংলাদেশের পক্ষে রেকর্ড ৩১২ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়া তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস যথারীতি ইনিংসের গোড়াপত্তন করবেন।

অন্যদিকে, তিন পেসার ও দুই স্পিনার নিয়ে দল সাজিয়েছে ভারত। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সঙ্গে আছেন দুই বছর পর দলে ফেরা অভিজ্ঞ অফস্পিনার হরভজন সিং। ‘টিম ইন্ডিয়া’র পেস আক্রমণ গড়ে উঠেছে উমেশ যাদব, ইশান্ত শর্মা ও বরুণ অ্যারনকে নিয়ে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

ভারত প্রথম ইনিংস : ৫৬ ওভারে ২৩৯/০ (বিজয় ৮৯*, ধাওয়ান ১৫০*)