প্রার্থী হতে ইচ্ছুকরা আইনের আশ্রয় নেবেন

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ , ২০১৫ সময় ০৫:৫১ অপরাহ্ণ

নির্ধারিত সময়ে গিয়েও ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে যারা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেননি বলে অভিযোগ করেছেন তাঁরা আইনের আশ্রয় নেবেন বলে জানিয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার অভিযোগকারীরা নির্বাচন কমিশনার (ইসি) আবদুল মোবারকের সঙ্গে দেখা করেন। তবে ইসি তাঁদেরকে জানিয়ে দেন যে এ ব্যাপারে তাঁদের কিছু করার নেই। কমিশন আর কোনো মনোনয়নপত্র নিতে পারবে না।

এ ব্যাপারে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ৫০ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী হতে ইচ্ছুক এ কে এম নুরুজ্জামান সবার পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, তাঁরা সঠিক সময়ে নির্বাচন কমিশনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার জন্য উপস্থিত হন। কিন্তু কর্মকর্তাদের গাফিলতির কারণে তাঁরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেননি। আনুষ্ঠানিক নিয়ম মেনে অগ্রসর হওয়ার পরও কোনো লাভ না হওয়ায় তাঁদেরকে আইনের আশ্রয় নেওয়ার কথা ভাবতে হচ্ছে।

গতকাল সোমবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে নির্ধারিত সময়ে গিয়েও মনোনয়নপত্র জমা দিতে না পারার অভিযোগ করেছে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে প্রার্থী হতে ইচ্ছুক ২৫-৩০ জন। অভিযোগকারী ব্যক্তিদের পক্ষে তিনজন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদের সঙ্গেও দেখা করেন। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ছিল ২৯ মার্চ বিকেল পাঁচটা।

অভিযোগকারীরা (সংরক্ষিত নারী আসন ও সাধারণ আসন) গতকাল সকাল থেকে নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে গিয়ে মনোনয়নপত্র জমা নেওয়ার জন্য পৃথক আবেদন জানান। অনেকে দলীয়ভাবেও আবেদন করেন। তাঁরা যুব মহিলা লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন দল ও সংগঠনের।


আরোও সংবাদ