প্রস্তুত হাজারীবাগ

প্রকাশ:| রবিবার, ৫ অক্টোবর , ২০১৪ সময় ০৯:৩১ অপরাহ্ণ

প্রস্তুত হাজারীবাগমুসলমানদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ। আর এই উৎসবকে ঘিরেই সারা বছরের চামড়ার মজুদ করে চামড়া ব্যবসায়ীরা। সে লক্ষ্যই লবণ আর প্রয়োজনীয় সব কেমিক্যাল নিয়ে প্রস্তুত হাজারীবাগের ছোট বড় প্রায় ২০০ থেকে ২৫০ ট্যানারি মালিক।

বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান মো. শাহিন আহমেদ বলেন, ‘দেশের চামড়া ব্যবসার মৌসুম মূলত কোরবানির ঈদকে ঘিরেই এ কারণেই আমরা এ বছর চামড়া মজুদের সব ধরণের প্রস্তুতি গ্রহন করেছি। যদিও প্রায় দুই মাস আগ থেকেই চলছে আমাদের প্রস্তুতি।’

তিনি বলেন, ‘গত বছর আমরা সাড়ে ১২ কোটি ডলারের চামড়া রপ্তানি করেছি। এবারও আমার প্রায় ৮০ লক্ষ চামড়া মজুদ করতে পারবো বলে আশা করছি।’

শাহিন আহমেদ জানান, এবার সীমান্ত দিয়ে বৈধ পথেই যতে করে কোন ধরনের চামড়া পাচার না হয় সেজন্য আমরা পুলিশের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তারা আমাদেরকে বলেছেন এবার একটি চামাড়াও পাচার হবে না। তারা আশ্বাস দিয়েছেন এবার ঈদের তিনদিন কোন ধরনের চামড়া বহনকারী ট্রাক ঢাকার বাইরে যেতে পারবে না।’

হাজারিবাগের ট্যানারিতে লবণ ও কেমিক্যাল সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান নাসির ট্রেডিং বলেন, ‘সারাবছর যে পরিমাণ লবণ লাগে তার ৮০ শতাংশই প্রয়োজন হয় এই সময়ে। আমরা সারাবছর ধরে একটু একটু করে লবণ সংগ্রহ করি এবং লবণের দামও সারা বছর যা থাকে সেটাই এখন থাকে।’

হাজারীবাগের বিভিন্ন ট্যানারি ঘুরে দেখা যায়, সব ট্যানারিতেই লবণ স্তুপ করে রাখা হয়েছে। সারি সারি ড্রামে সাজিয়ে রাখা হয়েছে বিভিন্ন রাসায়নিক।

ট্যানারি ওর্য়াকার্স ইউনিয়নের জেনারেল সেক্রেটারি আব্দুল মালেক বলেন, ‘আমাদরে শ্রমিকদের পাশাপাশি বাইরের শ্রমিকরা দুই তিন মাস আগে থেকেই কাজ করে। ট্যানারির রাসায়নিক, লবণ থেকে শুরু করে চামড়া প্রক্রিয়াকরণে যা যা প্রয়োজন হয় তা আগে থেকেই রেডি করে রাখে। এ কারনে চাপ মূলত ঈদের দুই মাস আগে থেকেই শুরু হয়।’