প্রযুক্তির সুফল গ্রহণ এবং কুফল বর্জন কর

প্রকাশ:| বুধবার, ৫ এপ্রিল , ২০১৭ সময় ১০:৪৩ অপরাহ্ণ

ফতেয়াবাদ বহুমুখি সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ এর নবীণ বরন, বার্ষিক পুরষ্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, অবাধ তথ্য প্রযুক্তির সুফল গ্রহণ এবং কুফল বর্জন করতে হবে। শিক্ষার্থীদের সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে বিশ্বমানের নাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। মেয়র প্রত্যেকের সুপ্ত প্রতিভা বিকশিত করে নিজেদেরকে সৎ, যোগ্য ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠার আহবান জানান। ৫ এপ্রিল বুধবার দুপুরে ফতেয়াবাদ বহুমুখি সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ এর নবীণ বরন, বার্ষিক পুরষ্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষনে মেয়র এ আহবান জানান। অত্র কলেজ ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌফিক আহমদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড চট্টগ্রাম এর কলেজ পরিদর্শক সুমন বড়–য়া, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা মিসেস নাজিয়া শিরিন, স্বাগত বক্তব্য রাখেন অত্র স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ এস এম বখতেয়ার। অনুষ্ঠানের শুরুতে ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠ, জাতীয় সংগিত পরিবেশন, অতিথিদের ক্রেষ্ট ও ফুল দিয়ে বরণ করা হয় । অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, শিক্ষা ক্ষেত্রে নারী পুরুষের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। সকল মানুষ এক আল্লাহর সৃষ্টি। নারীর ক্ষমতায়নে বর্তমান সরকার সর্বক্ষেত্রে সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছে। নারীরা স্বমহিমায় নিজেদের দক্ষতা কাজে লাগানোর সুযোগ পাচ্ছে। মেয়েদের শিক্ষা অর্জনের স্বার্থে সরকার উপবৃত্তি সহ বহু ধরনের সুযোগ সুবিধা দিয়ে যাচ্ছে। তিনি আশা করেন সৎ ও যোগ্য নাগরিক দ্বারা দেশের কল্যান হবে। বর্তমান ও আগামী প্রজন্মের উপর নির্ভর করে ২০৪১ সালে বাংলাদেশ উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশে উন্নিত হবে। তিনি সিটি কর্পোরেশনের শিক্ষা বিস্তার, স্বাস্থ্য সেবা সহ ক্লিন ও গ্রিন সিটি গড়ার ক্ষেত্রে সর্ব মহলের সহযোগিতা কামনা করেন। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন।


আরোও সংবাদ