প্রবাসীর স্ত্রী-শিশুপুত্র অপহৃত, মিলেনি সন্ধান

প্রকাশ:| বুধবার, ১৯ আগস্ট , ২০১৫ সময় ০৮:২৮ অপরাহ্ণ

পেকুয়া
পেকুয়া প্রতিনিধি
কক্সবাজারের পেকুয়ায় এক প্রবাসীর স্ত্রীসহ শিশুপুত্র অপহৃত হয়েছে। এদিকে অপহৃত হওয়ার ৩দিনেও তাদের খোঁজ মিলেনি। এ নিয়ে উৎকন্ঠায় রয়েছে তাদের পরিবার।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়ার পাহাড়িয়াখালী আবাদীঘোনা গ্রামের প্রবাসী বেলাল উদ্দিনের স্ত্রী দিলোয়ারা বেগম ও তার ৫ বছর বয়সী শিশু পুত্র সায়েদকে নিয়ে গত ১৭ আগষ্ট সকালে চকরিয়া ইসলামী ব্যাংকে যান স্বামীর পাঠানো টাকা উত্তোলন করতে। পরে বিকাল ৩টার দিকে একটি সিনএজি অটোরিক্সা করে টাকা নিয়ে ব্যাংক ফেরার পথে মগনামা-বানিয়ারছড়া সড়কের বরইতলী নতুন রাস্তার মাথা এলাকা থেকে সংঘবদ্ধ দূর্র্বূত্তরা ২জনকে অপহরণ করে অপর একটি সিএনজিতে তুলে অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে যায়। এসময় প্রবাসীর ১০ বছর বয়সী অপর ছেলেকে ধাক্কা মেরে অপহরণকারীরা ফেলে দেয়।

অপহৃত দিলোয়ারা বেগমের পরিবার অভিযোগ করেছেন, পূর্ব শত্র“তার জের ধরে বারবাকিয়া পাহাড়িয়াখালী গ্রামের নুরুন্নবীর পুত্র রেজাউল করিম (২৬), মাহমুদুল করিম (২৩), বাদশা মিয়ার পুত্র জমির উদ্দিন (২৮) ও রিদুয়ান (২৫), বাদশা মিয়া (৫০), সোহেল (২৫), সিরাজ (৩৩), ফাশিয়াখালী গ্রামের জালাল আহমদের পুত্র নুরুল হোছাইনসহ আরো কয়েকজন লোক সংঘবদ্ধ হয়ে ঘটনার দিন প্রবাসীর স্ত্রী ও তার শিশু পুত্রকে অপহরণ করে নিয়ে গিয়ে অজ্ঞাতস্থানে বন্ধী করে রেখেছে। অপহৃত হওয়ার সময় দিলোয়ারা বেগমের সাথে নগদ ১লাখ টাকা, একটি স্বর্ণের গলার রকেট ও ৩টি দামী স্বর্ণের আংটি ও ছিল। পরে খবর পেয়ে প্রবাসীর ভাই ফজল করিমসহ তাদের আত্মীয় স্বজনরা বহু জায়গায় খোঁজ করেও দিলোয়ারা বেগম ও তার শিশুপুত্র সায়েদের সন্ধান পায়নি।

এদিকে প্রবাসী বেলাল উদ্দিনের ছোট ভাইয়ের স্ত্রী রোজিনা আক্তার বাদী হয়ে এ নিয়ে পেকুয়া থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে। এজাহারে তিনি উল্লেখ করেছেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পাহাড়িয়াখালী গ্রামের নুরুন্নবীর পুত্র রেজাউল করিমের নেতৃত্বে ১২জন লোক দিলোয়ারা বেগম ও তার শিশুপুত্রকে অপহরন করেছে। রেজাউল করিম গংয়ের বিরুদ্ধে দিলোয়ারা বেগম ইতিপূর্বে পেকুয়া থানায় ২টি জিডি, চকরিয়া সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ২টি মামলা দায়ের করেছিল। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে তারা দিলোয়ারা বেগমকে অপহরণ করেছে।