প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত ব্যক্তিগত সমস্যা

প্রকাশ:| শনিবার, ৫ মার্চ , ২০১৬ সময় ১১:৪০ অপরাহ্ণ

শান্তিতে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহম্মদ ইউনূসকে যে বিতর্ক তা ভিত্তিহীন। তাকে নিয়ে যে সমস্যার উদ্ভব হয়েছে তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত ব্যক্তিগত। বিষয় সমাধানের আগেই বিতর্ক ছড়িয়ে পড়ায় এটা নিয়ে পানি ঘোলা হয়েছে।

Screenshot_140শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সূবর্ণ জয়ন্তী উৎসবে এ কথা বলেন ড. ইউনূসের এক সময়ের সহকর্মী ও ইউজিসি অধ্যাপক ড. মঈনুল ইসলাম।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক শিক্ষক ড. ইউনূস। প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত ইচ্ছার কারণেই তিনি এই সূবর্ণ জয়ন্তী উৎসবে উপস্থিত থাকতে পারেননি বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘ড. মুহম্মদ ইউনূসের যে সমস্যা, সেটা একান্তই প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত। এ সমস্যা সমাধানে আমাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। কিন্তু বিষয়টি সমাধান করার আগেই প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যর কারণে তাকে নিয়ে সমালোচনার শুরু হয়। তাই আজ অর্থনীতি বিভাগকে বিতর্ক থেকে বাচাতে ড. মুহম্মদ ইউনূস চট্টগ্রামে থেকেও সূবর্ণ জয়ন্তী উৎসবে আসেননি। যা অনেক দুঃখের, অনেক আবেগের।’

ড. মঈনুল বলেন, ‘মনের ভেতর ৫০ বছরের দুঃখ জমে আছে, এ দুঃখ কীভাবে ভুলি। আমার কান্না পায় যখন জগত বিখ্যাত একজন মেধাবী ড. মুহম্মদ ইউনূসকে কেউ গালি দেয়। তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে। আপনারা ষড়যন্ত্র করিয়েন না। তিনি বাংলাদেশকে নিয়ে কোনো ষড়যন্ত্র করেন না। বিষয়টি সমাধান করুন।’

এসময় আরো বক্তব্য রাখেন- বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) চেয়ারম্যান ড. রেহমান সোবহান, চবি উপাচার্য ড. অধ্যাপক ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন ও অর্থনীতি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের চেয়ারম্যান ফজলে কবির, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আলী আশরাফ, ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির উপাচার্য মো. সিকান্দার খান, চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ইশরাত কামাল খান, অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক নিতাই ভট্টাচার্য, অধ্যাপক জ্যোতি প্রকাশ দত্ত, অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আলী, জনতা ব্যাংক লিমিটেড বিভাগীয় কার্যালয় চট্টগ্রামের জেনারেল ম্যানেজার আবু নাসের চৌধুরী, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনিসুল হকসহ প্রমুখ।

এর আগে অর্থনীতি বিভাগের তিন হাজার প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে একটি বিশাল বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান শেষে বিভাগের শিক্ষার্থী ও স্থানীয় কণ্ঠশিল্পীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বিকেলে ব্যান্ড দল ‘সোলস’ সংগীত পরিবেশন করে।