প্রধানমন্ত্রী না হলে যুদ্ধাপরাধীদর বিচার হতো না

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর , ২০১৬ সময় ০৮:৪০ অপরাহ্ণ

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী না হলে এদেশে যুদ্ধাপরাধীদর বিচার করা সম্ভব হতো না মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো.শফিকুল ইসলাম।
প্রধানমন্ত্রী না হলে যুদ্ধাপরাধীদর বিচার হতো না
বৃহস্পতিবার কক্সবাজারের চকরিয়ার বিজয় মঞ্চে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, কিছু বিপথগামী যুবক ইসলাম ধর্মের নাম ব্যবহার করে সন্ত্রাসী ও জঙ্গিবাদী কাজে লিপ্ত হয়ে মানুষ হত্যা করছে। ইসলাম ধর্মে যার কোনো ভিত্তি নেই।

তিনি অভিভাবকদের উদ্দেশে বলেন, আপনার ছেলে যদি আসরের নামাজের পর বাড়ি না এসে মসজিদে বসে থাকে অথবা অন্য কোনো জায়গায় যায় তবে বুঝতে হবে সে বিপথে হাঁটছে। বাড়িতে যদি ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করে তবে বুঝতে হবে বিপথগামী হচ্ছে। তার কাছের বন্ধুদের ফেলে যদি নতুন কোনো বন্ধুদের সাথে মেলামেশা করে বুঝতে হবে সে সন্ত্রাসী অথবা জঙ্গিবাদের সাথে সম্পৃক্ত হচ্ছে। তাই সমাজ ও রাষ্ট্রকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদমুক্ত করতে হলে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে ১৬ কোটি মানুষের বসবাস। এর মধ্যে ১৫ কোটি মুসলিম ও ১ কোটি অন্যান্য ধর্মালম্বী মানুষ। তাই সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলমানদেরই বাকি ১ কোটি অন্যান্য সম্প্রদায়ের লোকদের নিরাপত্তা দেওয়া নৈতিক দায়িত্ব।

জঙ্গি, নাশকতা ও সন্ত্রাস প্রতিরোধ কমিটি চকরিয়া উপজলা শাখার সদস্যসচিব খালেদ মোহাম্মদের (মিথুন) সঞ্চালনায় এবং রেজাউল করিমের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কক্সবাজার জেলা পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার নাথ, জেলা পরিষদর প্রশাসক মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকট সিরাজুল মোস্তাফা, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, চকরিয়া উপজলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আলম, চকরিয়া উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাহেদুল ইসলাম, কক্সবাজার সদর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার কাজী মতিউল ইসলাম, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র মো.আলমগীর চৌধুরী প্রমুখ।


আরোও সংবাদ