‘প্রজ্ঞা-অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে শিক্ষার্থীদের দেশের কল্যাণে কাজ করতে হবে’

প্রকাশ:| রবিবার, ১৫ মে , ২০১৬ সময় ১১:০৫ অপরাহ্ণ

পলিটেকনিকচট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, শিক্ষার্থীদের প্রজ্ঞা ও অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে দেশের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করতে হবে। কারণ তাদের পেছনে সরকার ও জনগনের অবদান রয়েছে। প্রসঙ্গক্রমে মেয়র বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া সংগঠন। ছাত্রলীগ নেতাদের উপর জাতির জনকের ছিল অগাধ আস্থা আর বিশ্বাস। তিনি যেকোন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে ছাত্রলীগ নেতাদের সাথে আলাপ-আলোচনা করতেন। আজ যারা ছাত্রলীগ নেতা-কর্মী তাদেরকে দলের এই গৌরবময় ইতিহাস সামনে রেখে পথ চলতে হবে। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি সততা, নীতি-নৈতিকতা ও মূল্যবোধের শিক্ষা অর্জন করতে হবে। তিনি বলেন, জীবনে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার নেপথ্যে পিতামাতা, পরিবার, সমাজ, রাষ্ট্র ও সরকারের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। তাই প্রতিষ্ঠিত হয়ে পিতামাতা, পরিবার, সমাজ তথা সরকারের ঋণ শোধ করা তাদের নৈতিক দায়িত্ব। সুতরাং বড় হয়ে দৃষ্টিভঙ্গি, চিন্তা, চেতনা ও মনন দিয়ে দেশ উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে হবে। ১৫ মে রবিবার, সকালে চট্টগ্রাম নগরীর নাসিরাবাদস্থ চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর নব নির্বাচিত ছাত্র সংসদ এর অভিষেক, নবীন বরণ এবং পুরস্কার বিতরণ উপলক্ষে অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষনে তিনি এ সব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ ছালেহ আহমেদ। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু প্রজন্ম লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এ এম মহিউদ্দিন, বিশেষ অতিথি ছিলেন ছাত্র সংসদ প্রধান উপদেষ্টা অধ্যাপক আশুতোষ নাথ, ঢাকা বিজ্ঞান ও প্রযু্িক্ত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন, চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি প্রান্ত সরকার, মহানগর ছাত্রলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম, উপ-তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোরশেদুল আলম,সদস্য নুরুল হক মনির, চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্র সংসদ ভিপি বেলাল উদ্দিন, প্রো-ভিপি নুরুল বারী সাকিব,সহ-সভাপতি হাসান মাসুদ, জিএস আরিফ হাসান, যুগ্ম সম্পাদক শরীফুল ইসলাম মিয়াজী, ছাত্র সংসদ এজিএস ইমন সরকার, নবীন ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সোহাগ ও মুমু প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন চসিক কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবিদা আজাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রোমান দাশ ও যুগ্ম সম্পাদক আনিসুল ইসলাম সাজিদ। প্রধান অতিথি সিটি মেয়র ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন আরো বলেন, মেহেদী হাসান বাদল সুস্থ রাজনীতি চর্চার ধারা শুরু করেছিল বলেই সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের একসময়ের নির্ভীক সাহসী এই নেতাকে জীবন দিতে হয়েছে। এছাড়াও সম্প্রতি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের আরেক মেধাবী নির্ভীক নেতা প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র নাসিম আহমেদ সোহেলকেও নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে। মেহেদী হাসান বাদল ও সোহেলের হত্যাকান্ডের মূল অপরাধীরা লুকিয়ে থাকলেও আইন ঠিকই তাদেরকে বের করে আনবে। হত্যাকারীদের কেউই রেহাই পাবে না।
অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন, গীতা ও ত্রিপিটক থেকে পাঠ করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের নব নির্বাচিত ছাত্র সংসদের কর্মকর্তাদের পরিচয় করিয়ে দেন এবং শপথবাক্য পাঠ করান। অনুষ্ঠানে ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ও রানার্সআপদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। মেয়র চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট পৌছলে শিক্ষার্থীরা তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করেন। পরে তিনি শিক্ষার্থীদের আঁকা তার একটি প্রতিকৃতির ফলক উন্মোচন করেন।