পৈতৃক জায়গা নদীতে তলিয়ে যাওয়ায় অবৈধ স্থাপনা!

প্রকাশ:| বুধবার, ১৯ অক্টোবর , ২০১৬ সময় ১০:২৪ অপরাহ্ণ

%e0%a6%a8%e0%a6%a6%e0%a7%80-%e0%a6%ad%e0%a6%be%e0%a6%99%e0%a7%8d%e0%a6%97%e0%a6%a8%e0%a7%87-%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a7%9c%e0%a6%bf

বোয়ালখালী প্রতিনিধি:
অবৈধ স্থাপনায় ঢেকে যাচ্ছে নান্দনিক প্রাকৃতিক দৃশ্য। মরতে বসেছে কর্ণফুলি। বিলুপ্তির পথে নানা প্রজাতির মাছ।

পৈতৃক জায়গাজমি নদীতে তলিয়ে আছে দাবি করে একেরপর এক অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের প্রতিযোগিতায় রয়েছে নদীখোকোরা। বোয়ালখালী উপজেলার কর্ণফুলি তীরবর্তী এলাকা ঘুরে দেখা গেছে নদী ও পাড়ে কলকারখানা, বাণিজ্যিক ভবন, দোকানপাঠ খুলে ভালোই অর্থ আয়ের মাধ্যমে কোটিপতি বনছে নদী খেকোরা।

কর্ণফুলি নদীর ভাঙ্গনরোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডে কোটি টাকা ব্যয়ে বোয়ালখালী অংশে ফেলা হয় ব্লক। ফলে নদীর পাড় হয়ে উঠে নান্দনিক স্থান। উপজেলার কধুরখীলে এমনই একটি স্থানের নামকরণ করা হয় ‘মুক্তিযোদ্ধা রিভার ভিউ’। এ স্থানে প্রাকৃতিক দৃশ্য উপভোগের জন্য হাজারো মানুষের সমাগম ঘটে প্রতিদিন।

এ স্থানে নদী ও পাড় দখল করে স্থানীয় আবুল কাশেম নামের এক ব্যক্তি স্থাপনা নির্মাণের কাজ শুরু করেন ২০১৫ সালে। ওই সময় উপজেলা প্রশাসন নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিলেও অদৃশ্য কারণে সুরম্য ভবনে রূপান্তর ঘটে কাশেমের সেই স্থাপনা। সেই সুরম্য ভবনে রেস্টুরেন্ট খুলেন আবুল কাশেম।

১৯ অক্টোবর বুধবার চট্টগ্রাম বন্দরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট রোকেয়া পারভীন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বন্দরের মালিকানাধীন জায়গায় অবৈধভাবে দ্বিতল ভবন তৈরি করে রেস্টুরেন্ট পরিচালনা করায় মো.আবুল কাশেমকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।