পেশাজীবীদের সময়োচিত পদক্ষেপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ-তারেক

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১ মে , ২০১৪ সময় ০৬:২৪ অপরাহ্ণ

তারেক রহমানবিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান বলেছেন, ‘দেশ এক ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে, এ কঠিন সময়ে পেশাজীবীদের সময়োচিত পদক্ষেপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন আয়োজিত বিভাগীয় মনিটর এবং কো-অর্ডিনেটর সম্মেলনে টেলিকনফারেন্সে বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা বলেন।

রাজধানীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম পর্যালোচনা করতে এ সভার আয়োজন করা হয়। এতে ফাউন্ডেশনের বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের সমন্বয়কারীরা তাদের কার্যক্রমের বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরেন।

প্রায় ৩ ঘণ্টা ধরে স্কাইপির মাধ্যমে টেলিকনফারেন্সে অংশ নিয়ে প্রত্যেকের বক্তব্য শুনে নিজস্ব মতামত ব্যক্ত করেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট তারেক রহমান।

জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন সূত্র আরও জানায়, টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে এ ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত হয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেন তারেক রহমান।

তারেক রহমান বলেন, ‘আপনাদের জ্ঞান, অভিজ্ঞতা ও দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের মতো একটি সংগঠনের কাজকে আরও জনকল্যাণমূলক এবং গঠনমূলক করে তুলবেন বলে আমি বিশ্বাস করি। বিশেষ করে কৃষি, স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং অবকাঠামো উন্নয়নের ক্ষেত্রে নতুন প্রকল্প গ্রহণ এবং প্রকল্পের কার্যক্রমকে সাফল্যজনকভাবে চালিয়ে নেয়ার মাধ্যমে এ ফাউন্ডেশনকে একটি ব্যাতিক্রমধর্মী সংগঠন হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব বলে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।’

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কার্যক্রমকে সঠিকভাবে মূল্যায়ন করে একটি রির্সাচ সেল গঠন করার তাগিদ দিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনাদের নিজ পেশায় দক্ষতার ছাপ রয়েছে। এ দক্ষতাকে আপনারা গবেষণার মাধ্যমে কাজে লাগাতে পারবেন।’

ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তাদের কার্যক্রমের প্রশংসা করে তারেক রহমান বলেন, ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে নিহত ও আহতদের পাশে দাঁড়িয়েছে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন।’

দেশের অন্যতম শিল্প দুর্যোগ রানাপ্লাজা ট্রাজেডির ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের স্বাস্থ্য সেবায় জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের চিকিৎসকদের উদ্যোগেরও ভূয়সী প্রশংসা করেন তারেক রহমান।

ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনারের সঞ্চালনায় এ সভায় তারেক রহমানের সামনে রির্পোট ও পরিচিতি তুলে ধরেন- প্রফেসর ড. আবদুর রশিদ, প্রফেসর শহিদুর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার আলী মর্তুজা, প্রফেসর করিম ওয়াহেদ, ইঞ্জিনিয়ার জাকির হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার নাজিমুল হাসান, ড. সিরাজুস সালেহিন প্রিন্স, কৃষিবিদ মতিউল আলম, মতিউর রহমান দর্জালী, ড. শহীদ হাসান, ড. এ এস হায়দার পারভেজ, ড. হারুনুর রশিদ, ড. শেখ ফরহাদ, প্রফেসর আকরাম উল্লাহ সিকদার, কৃষিবিদ আনোয়ারুল নবী মজুমদার বাবলা, কৃষিবিদ রেজাউল করিম মিয়া, ইঞ্জিনিয়ার আফজাল হোসেন সবুজ, ইঞ্জিনিয়ার মুস্তাফিজুর রহমান মানিক, সাংবাদিক এলাহী নেওয়াজ খান সাজু, ইঞ্জিনিয়ার কাজী আবুল কাসেম, ড. মোজাদ্দেব আলসেফানী, ড. সৈয়দা তাজনীন ওয়রী, ড. সালাউদ্দিন সাঈদ, ড.মেজবাউল ইসলাম, প্রফেসর ড. মামুন আহমেদ, কৃষিবিদ শামিমুর রহমান, ড. মাসুদুল হক ঝন্টু, জাস্ট নিউজ বিডি সম্পাদক মুশফিকুল ফজল আনছারী প্রমুখ।


আরোও সংবাদ