পেট্রোল বোমাবাজদের বিরুদ্ধে জনগণ জেগে উঠছে

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৬ ফেব্রুয়ারি , ২০১৫ সময় ১১:১৫ অপরাহ্ণ

চকবাজার থানা আওয়ামী লীগের সমাবেশে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাবেক সিটি মেয়র আলহাজ্ব এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের সফল অভিযাত্রায় বাধা সৃষ্টিকারী বিএনপি-জামাতের নাশকতা-নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে জনগণ ’৭১-র মতো আবার জেগে উঠছে। সমস্ত শক্তি প্রয়োগ করে ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তুলতে জনগণ ইতোমধ্যে রাস্তায় নেমে পড়েছে। বিশৃঙ্খলাকারীরা পালিয়ে যাবার রাস্তা খুঁজে পাবে না। বক্তব্যে তিনি এসএসসি পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে যাবার পথে সকল বাধা নির্মূলে রাস্তায় নেতাকর্মীদের অবস্থানের নির্দেশ দেন। আজ ০৬ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বিকালে চকবাজারস্থ চক সুপার মার্কেট চত্বরে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ ঘোষিত ‘সাংগঠনিক মাস’ কর্মসূচীর নির্ধাারিত কর্মসূচী চকবাজার থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত হরতাল ও অবরোধ বিরোধী এবং বিএনপি-জামাতের ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

সমাবেশে প্রধান বক্তা চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, গণতন্ত্র রক্ষার নামে খালেদা জিয়া দেশের জনগণকে জিম্মি করে নাশকতার নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এই অগণতান্ত্রিক অপরাজনৈতিক শক্তিকে প্রতিহত করার শক্তি বাঙালির রয়েছে। যে আগুন খালেদা জিয়া জ্বেলেছেন বাংলার জনগণ সে আগুনে তাদেরকে পুড়িয়ে মারবে। ইতোমধ্যেই বোমাবাজদের বিরুদ্ধে জনগণ রুখে দাঁড়িয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ শুরু করেছে। বক্তব্যে তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বাংলাদেশের অভূতপূর্ব অগ্রগতি সফলতায় ঈর্ষান্বিত হয়ে ২০ দলীয় জোট দেশব্যাপী মানুষ পুড়িয়ে মারার খেলায় মেতেছে। এই অপশক্তিকে আর ছাড় দেয়া যাবে না। সকল নেতাকর্মীদেরকে সাহসী ভূমিকা নিয়ে রাজপথে জনগণের পাশে থেকে নাশকতা,নৈরাজ্যকারীদের প্রতিহত করার প্রত্যয় নিতে হবে।

চকবাজার থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আনসারুল হকের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন- মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী,আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনান, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড.শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মসিউর রহমান চৌধুরী, সহ-সম্পাদক শহীদুল আলম,কার্য নির্বাহি সদস্য আবুল মনসুর, আবদুল লতিফ টিপু,বিজয় কিষাণ চৌধুরী, কোতোয়ালি থানার সভাপতি আলহাজ্ব ফিরোজ আহমেদ, চকবাজার থানার নেতা ও স্থানীয় কাউন্সিলর সাইয়েদ গোলাম হায়দার মিন্টু, ইউনুছ কোম্পানি,মোজাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, আবুল বশর, মমতাজ খান, সুমন চৌধুরী, শেখ নাসির আহমেদ, নগর ছাত্রলীগ সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রণি প্রমুখ।