পেকুয়ায় সড়কের গাছ কেটে নিলেন প্রভাবশালীরা!

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১২ ফেব্রুয়ারি , ২০১৫ সময় ১১:২৩ অপরাহ্ণ

বিশেষ প্রতিনিধি

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় এক দুবাই প্রবাসীর লোকজনের বিরুদ্ধে রাতের আঁধারে সড়কে বন বিভাগের সৃজিত বিভিন্ন প্রজাতির কিছু গাছ কেটে নেওয়ার গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এদিকে খবর পেয়ে বন বিভাগের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রবাসীর বিরুদ্ধে গাছ কাটার সত্যতা পেয়েছে বলে জানা গেছে।

বন বিভাগ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, পেকুয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে পেকুয়া মডেল কেজি স্কুল এলাকা থেকে ১০/১২ বৎসর পূর্বে উপকূলীয় বন বিভাগের সৃজিত ৭/৮টি ম্যালেরিয়া গাছ গতকাল বুধবার গভীর রাতে কেটে নিয়ে গেছে এক প্রবাসীর ভাড়াটে লোকজন। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয়রা জানান, টইটং ইউনিয়নের উত্তর পূর্ব সোনাইছড়ি এলাকার মৃত মাষ্টার ছৈয়দ নুরের পুত্র প্রবাসী দিদারুল ইসলাম ওই সড়কের পাশে কিছু জমি কিনেন। আর ওই জমিতে গত কয়েক দিন পূর্বে তার স্ত্রীর ভাই জনৈক ওসমানের মাধ্যমে পাকা সীমানা প্রচীর নির্মাণ শুরু করেন। আর পাকা সীমানা প্রচীর নির্মাণে অসুবিধা হওয়ায় সড়কের পাশে বন বিভাগের সৃজিত গাছগুলো গতকাল বুধবার গভীর রাতে ওই প্রবাসীর স্ত্রীর ভাই জনৈক ওসমান ও তার লোকজন কেটে স’মিলে বিক্রি করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এদিকে খবর পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে উপকূলীয় বন বিভাগের মগনামা বন বিট কর্মকর্তার নেতৃত্বে বন বিভাগের কর্মীরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এ ব্যাপারে মগনামা বিট কর্মকর্তা মো. নিজাম উদ্দিন জানান, প্রবাসীর লোকজনের বিরুদ্ধে বন বিভাগের গাছ কাটার সত্যতা পাওয়া গেছে। কয়েক দিনের মধ্যেই বন বিভাগের গাছ কাটার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে বন আইনে মামলা দায়ের করা হবে বলে এ কর্মকর্তা জানিয়েছেন।