পেকুয়ায় স্বামীর নির্যাতনের শিকার গৃহবধু

প্রকাশ:| রবিবার, ৩ ডিসেম্বর , ২০১৭ সময় ১১:০১ অপরাহ্ণ

পেকুয়া (কক্সবাজার) সংবাদদাতা :

কক্সবাজারের পেকুয়ায় স্বামীর নির্যাতনে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন চার সন্তানের জননী রাশেদা বেগম (৪৫)। সে টইটং ইউনিয়নের জালালী মোরা এলাকার এরশাদ আলীর মেয়ে ও আবুল হোছেনের স্ত্রী। রবিবার (৩নভেম্বর) সকালে এ ঘটনা ঘটে।

আহত রাশেদা বেগম বলেন, স্বামী আবুল হোছেনের সাথে আমার বিশ বছরের সংসার। ইতিমধ্যে অনেক নির্যাতনের স্বীকার হয়েছি। স্থানীয় গ্রাম আদালতে শালিষও হয়েছে। বিগত ২বছর আগে স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন তার অনুমতি ছাড়াই। এরপর থেকে নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে গেছে তার। বর্তমানে ভরনপোষনও দিচ্ছেনা। তারপরও চার সন্তানের কথা চিন্তা করে সংসার করে যাচ্ছি। রবিবার সকালে বাড়িতে এসে আমাকে অহেতুক মারধর করে গুরুতর আহত করলে বোন হালেদা বেগম ও এক ভাই বাঁচাতে এগিয়ে আসলে তাদেরকেও মারধর করে আহত। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আমাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। স্বামী আলী হোছেন তাকে মারধরের কথা শিকার করেছেন।

ইউপি সদস্য আবু ওমর বলেন, এর আগেও তাকে মারধর করেছে স্বামী আলী হোছেন। গ্রাম আদালতেও শালিষ হয়েছে। স্ত্রীকে মারধর না করার জন্য বারণ করা হয়েছিল এবং তাদের সমস্ত ভরনপোষন দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলাম। তারপরও সে মারধর করে আহত করেছে। তাকে আইনের আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছি।

পেকুয়া থানা পলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মনজুর কাদের মজুমদার বলেন, আহত অবস্থায় এক মহিলা থানায় আসলে তাকে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।