পেকুয়ায় স্ত্রীকে ফিরে পেতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চায় অসহায় স্বামী

প্রকাশ:| শনিবার, ৯ এপ্রিল , ২০১৬ সময় ১১:২৮ অপরাহ্ণ

বউ-স্বামী
পেকুয়া প্রতিনিধি:
পেকুয়া উপজেলায় নিজ স্ত্রীকে ফিরে পেতে প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে অসহায় যুবক বেলাল উদ্দিন। ভালবেসে বিয়ে করে শাশুর বাড়ির লোকজনের ষড়যন্ত্র ও গভীর চক্রান্তে এখন চরমভাবে বিপাকে পড়েছে বেলাল। গত দুই মাস পূর্বে বাপের বাড়ীতে বেড়াতে গেলে তার স্ত্রীকে জোরপূর্বক অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে গিয়ে বন্ধি করে রাখে শাশুর বাড়ির লোকজন। পরে বেলাল উদ্দিন বেশ কয়েকবার শাশুর বাড়ীতে এসে স্ত্রীকে নিয়ে যেতে চাইলে তাকে নানা ধরনের হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। বেলাল উদ্দিন পেকুয়া সদর ইউনিয়নের পূর্ব বাইম্যাখালী গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র। এখন নিজ স্ত্রীকে ফিরে পেতে ব্যাকুল হয়ে পড়েছেন বেলাল। স্ত্রী বর্তমানে কোথায় আছে কি অবস্থায় দিনাতিপাত করছে সেটা নিয়ে গভীরভাবে চিন্তিত হয়ে পড়েছে বেলাল। স্ত্রীর শোকে বেলাল এখন নাওয়া-খাওয়া ভূলে গিয়েছেন। মানসিকভাবেও চরমভাবে ভেঙ্গে পড়েছেন বেলাল।
বেলাল উদ্দিন অভিযোগ করে জানান, পেকুয়া সদর ইউনিয়নের মিয়া পাড়া গ্রামের আবদুল মোনাফের মেয়ে মোছাম্মৎ তামান্নার সাথে তার দীর্ঘদিনের প্রেম ভালবাসা ছিল। ভালবাসাকে বাস্তবে রূপ দিতে তিনি ও তামান্না গত বছরের ২৫ মে কক্সবাজার নোটারী পাবলিকের কার্যালয়ে গিয়ে এড.নুরুল আজিমের মাধ্যমে নোটারী লিপিবদ্ধ করে ইসলামী শরিয়াত মোতাবেক ২লাখ টাকা দেনমোহরে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। এরপর থেকে দুইজনেই স্বামী-স্ত্রী হিসেবে খুব সুখেই সংসার করছিল। গত দুই মাস পূর্বে বেলালের বাড়ী থেকে বাপের বাড়ীতে যান তার স্ত্রী তামান্না। এতেই বাধে বিপত্তি। বেলালের শাশুর ও শাশুড়ী তার স্ত্রীকে চট্টগ্রামে নিয়ে গিয়ে এক আত্মীয়ের বাসায় আটকে রেখে অনত্র বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চালায়। এ খবর পেয়ে তিনি শাশুর বাড়ির লোকজনের সাথে দফায় দফায় যোগাযোগ করে স্ত্রীকে ফেরৎ চায়। কিন্তু তার সকল চেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়েছে শাশুর বাড়ির লোকজন এমনই অভিযোগ করলেন অসহায় বেলাল।
বেলাল উদ্দিন আরো জানান, শাশুর আবদুল মোনাফ, শাশুরী ও দুই ভাই মিলে তার স্ত্রী তামান্নাকে বর্তমানে অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে গিয়ে আটকে রেখে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছেন। তামান্না তার বিবাহিত স্ত্রী। তার পবিত্র সংসার চুরমার করতে শাশুর বাড়ীর চক্রান্তের কথা উল্লেখ করে বেলাল উদ্দিন এ ব্যাপারে প্রশাসনের কাছে সহায়তা কামনা করেছেন। এছাড়া বেলাল উদ্দিন কয়েক দিনের মধ্যেই তার স্ত্রী তামান্নাকে ফিরে পেতে শাশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করবেন।