পেকুয়ায় বিলীন হওয়া বেড়িবাঁধ সংস্কার শুরু

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৭ আগস্ট , ২০১৫ সময় ১১:২৪ অপরাহ্ণ

মো: ফারুক,পেকুয়া
পেকুয়ায় বিলীন হওয়া বেড়িবাঁধপাহাড় ও নদী বেষ্টিত উপকূলীয় এলাকা পেকুয়া। ঘূণিঝড়, পাহাড়ি ঢল ও অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে বন্যা ও জলোশ্বাসের সাথে সাথে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি নিত্যদিনের সঙ্গি। কখনো দুই একদিন আবারো কখনো মাসের পর মাস চলে যায় এসব ক্ষতি ফুসিয়ে উঠতে। গত রমজান মাসের মাঝামাঝি থেকে শুরু হওয়া তিন দফা বন্যা ও ঘূণিঝড় ‘কোমেন’ এর আঘাতে পেকুয়ায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির পাশাপাশি উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাঘগুজরা পয়েন্টে (রাবার ড্যাম সংলগ্ন) ২টি অংশে ৩ চেইন, উজানটিয়া ইউনিয়নে ঠেকপাড়ার দুটি পয়েন্টে প্রায় ৮চেইন, মগনামা কাকপাড়ায় ১ চেইন ও শরৎঘোনায় ৫ চেইন, রাজাখালী ইউনিয়নের সুন্দরীপাড়া ও মাতবরপাড়া পয়েন্টে ২ টি পয়েন্টেসহ ছোট বড় আরো কয়েকটি পয়েন্টে বেড়িবাঁধ সম্পূর্ন বিলীন হয়ে যায়। বিশেষ করে সদর ইউনিয়ন, উজানটিয়া ও মগনামায় বিভিন্ন পয়েন্টের বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে পাহাড়ি ঢল ও অতিরিক্ত বৃষ্টিতে নেমে আসা পানিতে পুরো ইউনিয়ন পানির তলে নিমজ্জিত হয়। ক্ষতির সম্মোখিন হয় কোটি কোটি টাকা। তখন থেকেই বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট দপ্তর ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দরা পরিদর্শন ও দৈনিক বাকঁখালী পত্রিকা স্বচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এরপর বেড়িবাঁধ সংস্কারে ব্যাপক উদ্দেগ গ্রহন করে সরকার। সর্বশেষ গত ৫ আগষ্ট ত্রাণ মন্ত্রানালয়ের সচিব শাহ আলম পেকুয়ায় আগমন করলে দৈনিক বাঁকখালী পত্রিকার পেকুয়া প্রতিনিধি দ্রুত বেড়িবাঁধ সংস্কারের জন্য দাবী তুলে ধরেন। সর্বশেষ বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে বেড়িবাঁধ সংস্কারের জন্য স্থানীয় উপজেলা প্রশাসনকে নির্দেশ প্রদান করেন তিনি।
এদিকে গতকাল সরোজমিন উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে বিলীন হওয়া বেড়িবাঁধ পরিদর্শন করতে গিয়ে দেখা গেছে, মারাত্মক ক্ষতির সম্মোখিন বাঘগুজরা পয়েন্টের বেড়িবাঁধটির ৪শতাধিক শ্রমিক দিয়ে সংস্কার কাজ শুরু করেছে স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। অন্যদিকে যুবলীগের নেতারা সদরের অন্যান্য অংশে ভেঙ্গে যাওয়া বেড়িবাঁধ সংস্কার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।
উজানটিয়া অংশে সাবেক যুবলীগ সভাপতি ও চেয়ারম্যানের ব্যাপক তৎপরতায় গত কয়েকদিন ধরে প্রায় ১হাজার শ্রমিক দিয়ে বেড়িবাঁধ সংস্কার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। মগনামা ইউনিয়নে মগনামা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও রাজখালীতে ইউপি চেয়ারম্যান স্ব-স্ব এলাকায় বেড়িবাঁধ সংস্কারের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। আর এর আর্থিক সহযোগিতা যোগাচ্ছে বাংলাদেশ সরকার।

বাঘগুজরা পয়েন্টের সংস্কার কাজের তদারকির দায়িত্বে থাকা সাবেক উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা আবুল শামা ও উপজেলা সৈনিকলীগের সভাপতি সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম হিরু জানান, গত ৪দিন ধরে আমরা বিলীন হওয়া বেড়িবাঁধ সংস্কার কাজ দ্রুত চালিয়ে যাচ্ছি। ইনশাল্লাহ আগামী তিন দিনের ভিতর এর পূর্নাঙ্গ কাজ শেষ করব বলে আশাকরি।
পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.মারুফুর রশিদ খান জানিয়েছেন, বর্তমান সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে ব্যাপক ত্রাণ সহযোগিতা প্রদান করা হয়েছে বর্তমানেও তা অব্যাহত আছে। অন্যদিকে পেকুয়াবাসীর নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য সরকারের ব্যাপক তদারকির মাধ্যমে বেড়িবাঁধ সংস্কার কাজ চলছে। আগামী কয়েকদিনে ইনশাল্লাহ বিলীন হওয়া বেড়িবাঁধ সংস্কার শেষ হবে।