পেকুয়ায় ফের শিশু নির্যাতন

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি , ২০১৬ সময় ১১:১৬ অপরাহ্ণ

শিশু নির্যাতন
পেকুয়া প্রতিনিধি
কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাইম্যাখালী এলাকায় বুধবার সন্ধ্যার দিকে পূর্ব শূত্র“তার জের ধরে দু’শিশুর উপর অমানবিক নির্যাতন চালিয়েছে দূর্বৃত্তরা। আহত দু’শিশু মো: আবু হোছাইন (৩), ছোট মণি(৬)ওই এলাকার জোবাইরের সন্তান। ওই সময় দূর্বৃত্তরা পিতাকে না পেয়ে তাদের আহত করার পাশাপাশি মা খাইরুনেছাকে মারধর ও শ্লীনতাহানীর চেষ্টাও চালায় বলে জোবাইর অভিযোগ করেছেন। এ সময় তাদের পিতা ও স্বামী বাড়িতে না থাকায় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদেরকে সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এদের মধ্যে ৩বছরের শিশু মো: আবুর আশংকাজনক বলে পেকুয়া সরকারী হাসপাতালের কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান জানিয়েছেন।

পেকুয়া হাসপাতালের টিএইচ জানান, শিশু আবুর পুরো মুখ মন্ডল ক্ষতবিক্ষত হয়ে গেছে। মারাত্মক জখম হয়েছে দুটি চোখে। আমরা চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছি দেখি কি করা যায়। তবে চোঁখে মারাত্মক ক্ষত সৃষ্টি হওয়ায় চোখের চিকিৎসার জন্য চমেকে রেফার করা হবে।

আহত শিশুদের পিতা জোবাইর বলেন, ঘটনার দিন আমি বাড়িতে ছিলাম না। এ সময় বাইম্যাখালী ও গোয়াখালীর সীমান্ত এলাকার জাহেদুল ইসলাম তার মেয়ে জামাই জসিম উদ্দিন ও মো: আরিফসহ আরো কয়েক দূর্বৃত্ত দেশীয় দারালো কিরিচ নিয়ে আমাকে খুজঁতে থাকে। ওই সময় আমার শিশু সন্তান আবু ও ছোট মণি তাদের কাছে এসে পিতা বাড়িতে নাই এ কথা জানালে তাদের মারধর করে গুরুতর আহত করলে তাৎক্ষনিক আমার স্ত্রী এসে তাদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তাকেও মারধর করে শাড়ি ছিড়ে ফেলে। ওই সন্ত্রাসীদের যদি আমার উপর এতোই রাগ হয় আমাকে মেরে ফেলত। আমার অবুঝ শিশুদের কেন এভাবে আহত করল। আমি এলাকাবাসী ও প্রশাসনের কাছে এর বিচারদাবী করছি।

পেকুয়া থানার ওসি মিয়া মুস্তাফিজ ভুইয়া জানিয়েছেন, এ বিষয়ে আমাদের কেউ অভিযোগ দেয়নি। তারপরও আমরা বিষয়টি দেখছি। শিশুদের নির্যাতনের ব্যাপারে কোন ছাড় নাই।


আরোও সংবাদ