পেকুয়ায় দূর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে যুবক আহত

প্রকাশ:| সোমবার, ১৬ অক্টোবর , ২০১৭ সময় ০৯:২৮ অপরাহ্ণ

 

পেকুয়া প্রতিনিধি

 

পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের বামুলাপাড়া এলাকায় দূর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে ওসমাণ গণি (৩২) যুবক গুরুতর আহত হয়েছে। আহত যুবক বদিউদ্দিন পাড়ার মৃত শফি আলমের পুত্র। রবিবার (১৫অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টায় বামুলাপাড়াস্থ ফাঁকা রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় তার সাথে থাকা জিয়াবুল করিম নামের অপর এক যুবক পালিয়ে রক্ষা পায়। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় তাকে দেখতে পরিবারকে খবর দিলে তাকে মূমর্ষ অবস্থায় পার্শ্ববর্তি লবণের মাঠ থেকে উদ্ধার করে পেকুয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করায়। সোমবার তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় চমেক হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে বলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন।

পেকুয়া সরকারী হাসপাতালে থাকাবস্থায় আহত যুবক ওসমাণ গণি বলেন, ঘটনার সময় রাত সাড়ে ১০টার কাছাকাছি। বামুলা পাড়াস্থ রাস্তা হয়ে এক আত্ত্বীয়ের বিয়ের অন্ষ্টুানে যাচ্ছিলাম। সাথে ছিল বন্ধু জিয়াবুল করিম। পথিমধ্য বামুলার পাড়ার মৃত আহমদ ছফার পুত্র আনসার উদ্দিন, আমির হোসেন, বাদশা, হোছাইন, এহেসান ও বাচ্ছুসহ ১৪/১৫ জনের একদল সন্ত্রাসী মাতাল অবস্থায় আমাদের গতিরোধ করে। এক পর্যায়ে তারা আমাদের উপর ছুরিকাঘাত করার চেষ্টা চালালে জিয়াবুল করিম পালাতে পারলেও আমার মাথায় ছুরিকাঘাত ও পায়ে লোহার রড় দিয়ে আঘাত করে চলে য়ায়। তারপর স্থানীয়রা আমাকে লবণের মাঠ থেকে উদ্ধার করেছে বলে শুনেছি। জ্ঞান ফেরার পর হাসপাতালে নিজেকে দেখতে পায়। এ বিষয়ে আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে আনসার উদ্দিন বলেন, ওসমাণকে কে মারধর করেছে তা আমি জানিনা। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তারা আমাকে জড়ানোর চেষ্টা করছে।