পেকুয়ায় জেলে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা, আটক ৩

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৮ আগস্ট , ২০১৮ সময় ১০:১০ অপরাহ্ণ

পেকুয়া প্রতিনিধি:
পেকুয়ায় ৭ জেলেকে মারধর ও মাথা ন্যাড়া করে চালানো নির্যাতনের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮আগস্ট) সকালে ভুক্তভোগি গোপাল সরদার বাদী হয়ে পেকুয়া থানায় এ মামলা দায়ের করেন। এতে উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের বদি উদ্দিন পাড়া এলাকার মৃত কাছিম আলীর ছেলে উপজেলা বিএনপির সদস্য নুরুল আবছার প্রকাশ বদু মেম্বারকে প্রধান করে এজাহারনামীয় পাঁচজন ও ২০-২৫জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামী করা হয়েছে।
এদিকে সোমবার দিনগত রাতে উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানী অভিযান চালিয়ে এজাহারনামীয় তিন আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন, বামুলা পাড়া এলাকার মৃত বজল আহমদের ছেলে জামাল হোসেন (৩২), বাশখালী জলদি ইউনিয়নের মহাজন পাড়া এলাকার মৃত কৃষ্ণ শীল (৪০) ও লোহাগড়া পুটিবিলা ইউনিয়নের তাতীপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল করিমের ছেলে আবুল কাশেম (৪৫)। কিন্তু এজাহারনামীয় অপর আসামী পেকুয়ার রাজাখালী ইউনিয়নের বদি উদ্দিন পাড়া এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে নুরুল আলম প্রকাশ ডাকাত আলম পলাতক থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
মামলার বাদী চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার ধলঘাট ইউনিয়নের জালিয়া পাড়া এলাকার মৃত সোনা সরদারের ছেলে গোপাল সরদার বলেন, গত ২৪আগস্ট মাছ ধরার কথা বলে আমরা ১২জেলেকে রাজাখালী ইউনিয়নের বদি উদ্দিন পাড়ায় নিয়ে যায় নুরুল আবছার প্রকাশ বদু মেম্বার। মাছধরা শেষে ফেরার পথে বদু মেম্বারের নির্দেশে আমি সহ ৭ জেলেকে আটকে রেখে নির্যাতন করা হয়। পরে মাথা মুড়িয়ে ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে ঘুরানো হয়। মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জহিরুল ইসলাম খান বলেন, ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া ভিডিও গুলো দেখে নির্যাতনের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার অভিযান চালানো হচ্ছে। ইতিমধ্যে তিনজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষদের উপর চালানো এমন বর্বর ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।